সাভারে বিএনপি নেতার ছেলে এখন ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক!

স্টাফ রিপাের্টার : সাভারের বিরুলিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের নবগঠিত কমিটিতে সাধারণ সম্পাদকের দ্বায়িত্ব পেয়েছেন উপজেলা বিএনপি’র সহযোগী সংগঠনের গুরুত্বপূর্ণ নেতার ছেলে। বিষয়টি নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের মধ্যে। সদ্য অনুমোদনপ্রাপ্ত কমিটিতে বিরুলিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইমরান হোসেনের পিতা সাভার থানা জাতীয়তাবাদী কৃষক দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. শাহাবুদ্দিন। বিএনপি দলীয় সাবেক সংসদ সদস্য ও ঢাকা জেলা বিএনপির সভাপতি ডা. দেওয়ান সালাউদ্দিন বাবুর অত্যন্ত আস্থাভাজন হিসাবে পরিচিত কৃষকদল নেতা শাহাবুদ্দিন।

গত ১ সেপ্টেম্বর আগামী এক বছরের জন্য বিরুলিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের নতুন কমিটি ঘোষণা করে সাভার উপজেলা ছাত্রলীগ। সাভার উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আতিকুর রহমান আতিক ও সাধারণ সম্পাদক ফিরোজ কবির স্বাক্ষরিত এই কমিটিতে সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব দেওয়া হয় ছাত্রদলের কর্মী মো. ইমরান হোসেনকে।

ইমরানের সাথে রাজনীতি করা অনেকেই বলছেন, ইমরান তার পিতার রাজনৈতিক আদর্শকে ধারণ করে ছাত্রদলের একজন সক্রিয় কর্মী ছিলেন। দীর্ঘদিন স্থানীয় ছাত্রদলের নতুন কমিটি না হওয়ায় নতুন কমিটিতে নিজের স্থান করে নেওয়ার অপেক্ষায় ছিলেন। তবে হঠাৎ করেই ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক বনে যান ছাত্রদল কর্মী ইমরান।

বিরুলিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল মন্ডল জানান, বিরুলিয়া ইউনিয়নের কালিয়াকৈর বাজারের প্রকাশ্যে দিবালোকে শফিক নামে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা করেন কৃষকদল নেতা শাহাবুদ্দিন। বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আমলে এলাকার আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের বাড়ি ঘরে হামলা ও নির্যাতন চালায় শাহাবুদ্দিনের ক্যাডার বাহিনী। এখন ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কমিটিতে তার ছেলেকে সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব দেওয়ার বিষয়টি দুঃখজনক। আবিলম্বে তিনি এই বিতর্কিত কমিটি বাতিলের দাবি জানান।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত বিরুলিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইমরান হোসেনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, যারা কমিটির দিয়েছেন তারা আমার ব্যাপারে জানেন। এছাড়া তার বিষয়ে আনীত অভিযোগের বিষয়ে কথা বলতে অপরাগতা প্রকাশ করে মোবাইল ফোন কেটে দেন তিনি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সাভার উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আতিকুর রহমান আতিক বলেন, দীর্ঘদিন পর বিরুলিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কমিটি গঠন করা হয়েছে। এখানে কিছু ভুল-ভ্রান্তি থাকতে পারে, যা আমরা সংশোধন করে নিবো। অভিযোগ যাচাই বাছাই করে সত্যতা পেলে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ ব্যাপারে ঢাকা জেলা উত্তর ছাত্রলীগের সভাপতি সাইদুল ইসলাম বলেন, সাভার উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আতিক এই কমিটির অনুমোদন দিয়েছেন। কমিটিতে বিএনপি নেতার ছেলে সাধারণ সম্পাদক হওয়ার বিষয়টি আমিও শুনেছে। বিষয়টি খোঁজ নিয়ে তার ব্যাপারে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *