সাতক্ষীরায় কলারোয়ায় করোনা আক্রান্ত রোগীর ঋণের বোঝা সইতে না পেরে আত্মহত্যা

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি ঃ সাতক্ষীরা কলারোয়ায় করোনা আক্রান্ত এক ব্যক্তির মাথার ঋনের বোঝা নিয়ে পরিবারের সাথে মনোমালিন্যতায় গলায় রশি পেঁচিয়ে আতœহননের পথ বেছে নিয়েছেন বলে জানা গেছে। আজ শনিবার কলারোয়া উপজেলার কেরালকাতা ইউনিয়নের ইলিশপুর গ্রামের নিজ বাড়ির পাশের একটি আমগাছের ডাল থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।
আত্মহননকারী ব্যক্তির নাম আজগর আলী (৫৬)। তিনি ইলিশপুর গ্রামের মৃত জালাল উদ্দীনের ছেলে।
পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, আত্মহননকারী আজগর আলী গত ১৪ দিন আগে করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন ছিলেন। এতে তার পরিবার ৭০ থেকে ৮০ হাজা টাকা ঋণ নিয়ে তার চিকিৎসাবাদ খরচ করেন। এ নিয়ে তার পরিবারের সাথে তার মনোমালিন্য হয়। সংসারের খরচের পাশাপাশি এতো ঋণ হওয়াতে মানসিকভাবে তিনি ভেঙে পড়েন। এক পর্যায়ে শনিবার ভোরে সবার অজান্তে বাড়ির পাশের একটি আম গাছে গলায় রশি পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন।
ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে কলারোয়া থানার এস আই রেজাউল ইসলাম আত্মহননকারীর লিখে যাওয়া সুইসাইড নোটের বরাত দিয়ে জানান, তিনি করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় চিকিৎসা নিতে প্রচুর টাকা ব্যয় হয় তার পরিবারের। এ ব্যয় সামলাতে না পেরে তিনি স্বেচ্ছায় আত্মহননের পথ বেছে নিয়েছেন।
কলারোয়ার স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘সেবা’র তত্ত্বাবধানে শনিবার বিকালে তাকে পারিবারিক কবর স্থানে দাফন করা হয়েছে।
কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মীর খাইরুল কবীর আত্মহননের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা রেকর্ড করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *