সাতক্ষীরায় করোনার উপসর্গ নিয়ে ৫ নারীসহ ৮ জনের মৃত্যু, ভাইরাসটিতে নতুন শনাক্ত ৫৪ জন, চলছে ঢিলেঢালা লকডাউন

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি ঃ সাতক্ষীরায় চলমান লকডাউনে করোনা সংক্রমনের হার কিছুটা কমলেও মৃত্যুর হার কমেনি। গত ২৪ ঘণ্টায় ভাইরাসটির উপসর্গ নিয়ে ৫ নারীসহ মোট ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়। এনিয়ে, জেলায় করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন আরো মোট ৩২১ জন। আর ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন আরো ৬৬ জন। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় ১৬৫ জনের নমুনা পরীক্ষা শেষে ৫৪ জনের করোনা পজেটিভ শনাক্ত হয়েছে। যা শনাক্তের হার ৩২ দশমিক ৭৩ শতাংশ। এ নিয়ে জেলায় আজ পর্যন্ত মোট করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৩ হাজার ২৬২ জন। এরমধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২ হাজার ৩৪ জন। বর্তমানে জেলায় ৮৬২ জন করোনা আক্রান্ত রুগী রয়েছেন। এর মধ্যে ২৭ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও ১৭ জন বেসরকারী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। বাকী ৮১৮ জন বাড়িতে হোম আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
এদিকে, সাতক্ষীরায় চতুর্থ দফা চলমান লকডাউনের ২৪ তম দিনেও চলছে ঢিলেঢালা ভাবে। লকডাউনের নামে সড়কে যেনো লুকোচুরি চলছে। ভারি যানবাহন ছাড়া সবই চলছে স্বাভাবিকভাবে। স্বাস্থ্যবিধি না মেনেই মানুষ চলাফেরা করছেন। হাট বাজারও করছেন। তবে বেলা ১১ টার পর সব দোকানপাট বন্ধ থাকলেও চুরি করেই চলছে বেচাকেনা। পুলিশের বাধা ও ব্যারিকেডও মানছে না কেউই। হাট বাজার গুলোতে প্রচুর মানুষের ভিড় দেখা গেছে। যদিও পুলিশ মোড়ে মোড়ে চেকপোষ্ট বসিয়ে চলাচল নিয়ন্ত্রনের চেষ্টা করছেন। বন্ধ রয়েছে গণপরিবহন। তবে, ইজিবাইক, রিকসা, ভ্যান ও মোটর সাইকেল যোগে মানুষ গন্তব্যস্থলে পৌছানোর চেষ্টা করছেন। লকডাউনে জরুরি সেবা প্রতিষ্ঠান খোলা রয়েছে।
সিভিল সার্জন ডা. হুসাইন শাফায়াত সকলকে মাস্ক পরার ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহবান জানিয়ে বলেন, জনসচেতনতা কম থাকায় মানুষ লকডাউন লঙ্ঘন করছে। তবে আইনশৃংখলা বাহিনী জেলার ৭ টি উপজেলায় জনসমাগম ও যানবাহন চলাচল নিয়ন্ত্রনের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এজন্য পুলিশ বিভিন্ন সড়কে বসিয়েছে ব্যারিকেড।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *