সহকর্মী হত্যা: রামপুরায় পোশাক শ্রমিকদের তুলকালাম পুলিশের লাঠিচার্জ-গুলি, আহত ২

নিজস্ব প্রতিবেদক : চোর সন্দেহে সহকর্মীকে হত্যার ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাজধানীর রামপুরা এলাকায় ব্যাপক বিক্ষোভ করেছে পোশাক শ্রমিকরা। ভাঙচুর চালানো হয়েছে ঘটনার সূত্রপাত হওয়া কারখানায়। যান চলাচল বন্ধ করে দিয়ে ব্যাপক দুর্ভোগও ঘটিয়েছে তারা।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর মালিবাগে আবুল হোটেলের পাশে ‘ইজি ফ্যাশন’ নামের একটি পোশাক কারখানায় চুরির অভিযোগে এক শ্রমিককে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। তার নাম দেলোয়ার সাঈদ। তিনি প্রতিষ্ঠানের কাটিং বিভাগে কাজ করতেন। প্রতিবাদে দেলোয়ারের সহকর্মীরা বেলা পৌনে তিনটায় সড়কে অবস্থায় নিয়ে বিক্ষোভ করে। তারা কারখানাটিতে ভাঙচুর চালায়।

স্থানীয়রা জানায়, ভাংচুরের সময় শ্রমিকদের একটি অংশ কারখানায় ঢুকে বিপুল পরিমাণ পোশাক ও থান কাপড়সহ বিভিন্ন জিনিসপত্র লুট করে।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে এলাকাটিতে বিপুল পরিমাণে পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হয়, ঘটনাস্থলে পৌঁছে পুলিশের সাঁজোয়া যান।

শ্রমিকরা আবুল হোটেলের সামনে রামপুরা সড়কের একপাশ অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করে। কিছু যানবাহন ভাঙচুরও করেছে তারা। এতে সড়কের দুই পাশেই যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। ফলে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। দুই পাশেই কয়েক কিলোমিটার এলাকায় যানজট ছড়িয়ে পড়ে।

বিকেল ৩টা ৫০ মিনিটের দিকে পুলিশের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে শ্রমিকদের সড়ক ছেড়ে দেওয়ার জন্য বোঝানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু শ্রমিকরা সেটা না করে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ায় জড়িয়ে পড়ে। এ সময় পুলিশ সাঁজোয়া গাড়ি থেকে কাঁদানে গ্যাস ছুড়ে শ্রমিকদের ছত্রভঙ্গ করার চেষ্টা করে।

পরে সন্ধ্যার আগে আগে শ্রমিকরা রাস্তা থেকে সরে গেলে যান চলাচল শুরু হয়। কিন্তু কয়েক ঘণ্টা রাস্তা বন্ধ থাকার প্রভাব পড়ে শহরের কেন্দ্রস্থলে। অফিস ফেরত মানুষ বাড়ি ফিরতে গিয়ে ব্যাপক ভোগান্তিতে পড়ে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *