শিবগঞ্জের কানসাটে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার

নুরতাজ আলম : শিবগঞ্জ উপজেলার কানসাট পুকুরিয়া থেকে মোসা. কামরুন নাহার পুতুল (২৪) নামে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। উদ্ধার কৃত লাশের গলায় ফাঁস লাগানো থাকলেও মৃতের মামার দাবী তাদের মেয়েকে মেরে অাত্নহত্যা বলে প্রচারণার চেষ্টা চলছে।

মঙ্গলবার রাত ১১ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন নিহত পতুলের মামা রুবেল। তিনি আরো জানান, এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড।
এ ছাড়াও গলায় কালো দাগ রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে শক্ত তার দিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়। পরে সিড়ি ঘরে দড়িতে লাশ ঝুলিয়ে দেয়া হয়।

এদিকে শিবগঞ্জ হাসপাতাল সূত্রেে জানা গেছে মঙ্শুগলবার রাত ১০ টার দিকে  পুতুলকে  শিবগঞ্জ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে ।
শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি তদন্ত মো. আতিকুল ইসলাম জানান, কানসাট পুকুরিয়া থেকে বেনাউল ইসলামের ছেলে চঞ্চল এর স্ত্রী ছিলো পুতুল। পুতুলের আগেও বিয়ে হয়েছিল। একটি ৩ বছরের মেয়েও আছে তাদের।আগের স্বামীর সাথে ছাড়াছাড়ির পর চঞ্চলকে বিয়ে করে পুতুল। লাশ উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।
অন্যদিকে শিবগঞ্জ থানার ওসি শামসুল অালম শাহ জানান, পুতুল নামের এক গৃহবধুর লাশ পুলিশ উদ্ধার করে এনেছে।লাশের গলায় কালো দাগ রয়েছে।তাদের পারিবারিক দ্বন্দ রয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে।তবে ময়নাতদন্ত শেষে জানা যাবে মৃত মহিলার মৃতের কারন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *