ভারতে করোনায় ৮৬৪ চিকিৎসকের মৃত্যু

নয়াদিল্লী, ০৮ মে – ফেব্রুয়ারিতে ভারত সরকারের একটি দাবি নাকচ করে দেয় ইন্ডিয়ান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন তথা আইএমএ। সরকার জানিয়েছিল, এর আগের বছরে কভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে ১৬২ জন চিকিৎসক মারা গেছেন। কিন্তু সংস্থাটি জানায়, এ সংখ্যা চার গুণেরও বেশি।

আইএমএ’র মতে, আগের বছর ৭৩৬ জন চিকিৎসক করোনায় মারা গেছে। আর শুক্রবার দেওয়া তথ্য মতে, এ বছরের প্রথম চতুর্থাংশে মারা গেছে আরও ১২৮ জন। সব মিলিয়ে ৮৬৪ জন চিকিৎসকের মৃত্যু দেখেছে ভারত।

আইএমএ জানায়, করোনা বিপর্যস্ত মহারাষ্ট্রে এখন পর্যন্ত ১৬৮ জন চিকিৎসক মারা গেছেন। শুধু এপ্রিলেই ৩৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। তামিলনাড়ুতে ৮৯ জন আর পশ্চিমবঙ্গে ৮০ জন চিকিৎসক মারা গেছেন।

জানা গেছে, করোনার দ্বিতীয় ঢেউতে ৫০ থেকে ৭০ বয়সী চিকিৎসক বেশি মারা গেছেন। এমনকি বহু তরুণ চিকিৎসকেরও মৃত্যু হয়েছে।

আইএমএ বলছে, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে এপ্রিল এ চার মাসে চিকিৎসক মৃত্যুর হার প্রায় গত বছরের সমানই, ১৭ ভাগের মতো।

চিকিৎসকদের মৃত্যু নিয়ে সরকারি পর্যায়ে অবহেলার অভিযোগ করেছেন আইএমএ সাবেক ন্যাশনাল প্রেসিডেন্ট রবি ওয়ানখেদকার। তার মতে, কেন্দ্র ও রাজ্য পর্যায়ে স্বাস্থ্যকর্মীদের করোনা ও টিকা গ্রহণের তথ্য আনুষ্ঠানিকভাবে সংরক্ষণ করা উচিত ছিল। কিন্তু দুঃখজনকভাবে সরকার সে চেষ্টা করেনি। এখন সংস্থাটি নিজেরাই তথ্য জোগাড় করছে।

আরও জানান, করোনার প্রথম ডোজের টিকা নিয়েছেন ৯৪.৭ লাখ স্বাস্থ্যকর্মী, আর দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন সাড়ে ৬৩ লাখ। আইএমএ করোনায় মারা যাওয়া চিকিৎসকদের পরিবারকে আর্থিক সাহায্যও দিয়েছে।

সূত্র : দেশ রূপান্তর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *