বেনাপোল বন্দরে আমদানি পন্যচালান ঢোকায় নয়া রেকর্ড।

স্টাফ রিপোর্টার : এনবিআরের রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা পুরনে বেনাপোল শুল্কভবনের নতুন নির্দেশনা জারির পর ২৪ ঘন্টায় রেকর্ড প্রায় ৮০০ ট্রাক আমদানি পণ্য বন্দরে ঢুকেছে।

বেনাপোল শুল্কভবনের কমিশনার মোহাম্মদ বেলাল হোসাইন চৌধুরী বলেন,ভারতীয় কাস্টম ও বন্দর কর্তৃপক্ষের সাথে বৈঠক করে ২৬টি পন্যের ‘ট্রাক টু ট্রাক’ খালাসের ব্যবস্থা করা হয়েছে ।এতে বুধবার রাত ১০টা পর্যন্ত ২৪ ঘন্টায় রেকর্ড প্রায় ৮০০ট্রাক পন্যচালান বেনাপোল বন্দরে ঢুকেছে।যা বন্দরের ইতিহাসে এই প্রথম।

বেলাল হোসাইন চৌধুরী গ্রামের সংবাদকে বলেন, ভারত ও বাংলাদেশে নির্বাচন ও ঈদের লম্বা ছুটির কারনে বেনাপোলে রাজস্ব আদায় কম হয়েছে। তবে জুন মাসের মধ্যে রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা পুরণ করতে সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে। ভারতীয় কাস্টম কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে সকাল ৮টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত আমদানি পণ্যচালান গ্রহন করা হচ্ছে । ‘দিনের রাজস্ব দিনে’ আদায়ের জন্য পণ্য দ্রুত খালাশের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। উচ্চ শুল্কের পন্য দ্রুত পরীক্ষন ও এ্যাসেসমেন্ট করতে শুল্কভবনে লোকবল বাড়ানো হয়েছে । ভারত থেকে আমদানি করা পণ্য দ্রুত স্ক্যানিং করে পরীক্ষন কাজ সম্পন্ন শেষে ট্রাক টু ট্রাক খালাশের অনুমতিও দেয়া হয়েছে।
ঈদের ছুটি শেষে বন্দর খোলার পর দ্রুত পন্য খালাশে নতুন নতুন নির্দেশনা জারি করায় আমদানি বানিজ্য বৃদ্ধি পেয়েছে।

বেনাপোল শুল্কভবনের সহকারী কমিশনার আকরাম হোসেন বলেন, এনবিআর চলতি অর্থবছরে বেনাপোল শুল্কভবনের রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারন করে দেয় ৫ হাজার ১৮৩ কোটি টাকা। মে মাস পর্যন্ত আদায় হয়েছে ৩হাজার ৭শ ৭০কোটি টাকা । তবে খুব শীঘ্র এনবিআর এই লক্ষ্যমাত্রা কমিয়ে পূর্ননির্ধারন করবেন ।জুন মাসে লক্ষ্যমাত্রা পুরনে সবরকম প্রচেষ্টা চালানো হচ্ছে।

“যে দিনের রাজস্ব সেই দিনেই আদায় করতে হবে । আর এই রাজস্ব আদায়ে কোন কর্মকর্তা যদি ব্যবসায়ীদের ইচ্ছাকৃত হয়রানির করেন তাহলে তার বিরুদ্ধ তাৎক্ষনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।” বেনাপোল শুল্কভবনের কমিশনার মোহাম্মদ বেলাল হোসাইন চৌধুরীর এমন নির্দেশনা জারির পর ব্যবসায়ীদের মাঝে ব্যপক উৎসাহ দেখা গেছে।

বেনাপোল শুল্কভবনের চেকপোস্ট কার্গো শাখার রাজস্ব কর্মকর্তা মিজানুর রহমান বলেন, দ্রুত রাজস্ব বাড়ানোর জন্য এ ধরনের উদ্যোগে গত দুদিনে বন্দরে আমদানি বেড়েছে । রোববার পেট্রাপোল বন্দর থেকে ৪৮৭টি ট্রাক আমদানি পন্য নিয়ে বেনাপোল বন্দরে এসেছে । গতমাসে যার পরিমান ছিল ২৫০ থেকে ২৭০ট্রাক । সোমবার ৪৪৫ ট্রাক, মঙ্গলবার ৪৩৯ট্রাক ও বুধবার রাত ১০টা পর্যন্ত ৪০০টি ট্রাক আমদানি পণ্য নিয়ে বেনাপোল বন্দরে ঢুকেছে।এসময় প্রতিদিন অন্তত ১২ কোটি টাকা করে রাজস্ব সরকারি কোষাগারে জমা পড়েছে ।

বেনাপোল সিএন্ডএফ এজেন্টস এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মফিজুর রহমান স্বজন বলেন, বেনাপোল শুল্কভবনের রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা পুরনের জন্য কাস্টমস কর্তৃপক্ষ ব্যাপক আইনী পরিবর্তন এনেছেন। বন্দর থেকে উচ্চ শুল্কের পন্য দ্রুত খালাশ করতে ব্যবসায়ীদের অাহবান জানানো হয়েছে। সে লক্ষ্যে ব্যবসায়ীরা কাজ করে যাচ্ছেন।

বেনাপোল বন্দরের উপ-পরিচালক মামুনুর রহমান তরফদার জানান, দ্রুত রাজস্ব আদায়ে কাস্টমসের এ ধরনের কার্যক্রম গ্রহন করার পর বেনাপোল বন্দরে আমদানি বানিজ্যে গতি পেয়েছে ।বন্দরে পণ্যজট কমাতে দ্রুত পণ্য খালাসের জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *