বাগআঁচড়ার বিভিন্ন ক্লিনিক গুলোতে রোগীদের ভীড়,,,

আজিজুল ইসলামঃ করোনা ছড়িয়ে পড়েছে গ্রামে। তাই করোনার চিকিৎসা ব্যাবস্থা চালু করতে হবে মফস্বল শহরে। না হলে মৃত্যু হার বেড়ে যাবে।
মফস্বল ক্লিনিক গুলিতে ভালো মানের চিকিৎসক ও করোনা চিকিৎসা সম্পর্কে ধারনা না থাকায় অনেক রোগী অকালে প্রান হারাচ্ছেন।
সাম্প্রতিক সময়ে ১৩ জন রোগী অজ্ঞতার কারনে প্রান হারিয়েছেন বলে অভিযোগ । ক্লিনিক গুলিতে এখন সিজেনিয়াল রোগী বেশী। তাই চিকিৎসা দিতেও অভিজ্ঞতার প্রয়োজন। সর্দী, কাশি, জ্বর মাথা ব্যাথা নিয়ে রোগীরা হাজির হচ্ছেন ক্লিনিকে। অন্যান্য উপস্বর্গ তো আছেই।
এ সংক্রান্ত বিষয়ে এ প্রতিবদকের সঙ্গে কথা হয় বাগআঁচড়া জোহরা মেডিকেল সেন্টারের পরিচালক ডাঃ হাবিবুর রহমান হাবিবের সাথে। তিনি জানান, তার ক্লিনিকে রোগী আসলে তাদের করোনা টেষ্ট দেয়া হয় প্রথমে। পরবর্তীতে রিপোর্ট এর উপর ভিত্তি করেই তাদের চিকিৎসা দেয়া হয়। তিনি আরো জানান করোনা প্রাদুর্ভাব বেড়ে যাওয়ায় এখানে বিচক্ষনতার সাথে খুব যত্ন সহকারে রোগীদের সেবা প্রদান করা হচ্ছে। অভিজ্ঞ চিকিৎসকরা এখানে নিয়মিত রোগী দেখছেন।
উল্লেখ্য আজ খুলনা বিভাগে সর্বোচ্চ একদিনে ৪৬ জন করোনায় মারা গেছেন, আক্রান্ত হয়েছেন ১,৩০৪ জন, করোনায় শুধু মাত্র যশোরে মারা গেছেন ১৭ জন। এই আলোকে তার সাথে কথা বললে, তিনি জানালেন তার হাসপাতালে করোনা পজেটিভ রোগীদের জন্য অক্সিজেনের ব্যাবস্থা করবেন। অক্সিজেন ব্যাবস্থা চালু করলে বাগআঁচড়ার গ্রামাঞ্চলের করোনা আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা দেয়া খুব সহজ হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *