‘ফ্লোরোনা’ করোনা ও ইনফ্লুয়েঞ্জার যৌথ রূপ

ডেস্ক রিপোর্ট : ইসরাইলে প্রথমবারের মতো একজনের শরীরে শনাক্ত হয়েছে ‘ফ্লোরোনা’। যা করোনা ও ইনফ্লুয়েঞ্জার যৌথ রূপ । আরব নিউজের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা এএনআই শনিবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে। আরব নিউজ এক টুইটার বার্তায় এ খবর নিশ্চিত করেছে বলে ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

এক অন্তঃস্বত্তা নারীর শরীরে ‘ফ্লোরোনা’ শনাক্ত হয় বলে জানা গেছে। চলতি সপ্তাহেই প্রসব যন্ত্রণা নিয়ে একটি স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি হয়েছিলেন তিনি। ওই নারী করোনার একটি টিকাও নেননি।

গত এক সপ্তাহে হঠাৎ করেই ইসরাইলে ইনফ্লুয়েঞ্জার সংক্রমণ বেড়েছে। পাশাপাশি করোনার দাপট তো আছেই।

ইসরাইলের স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয় জানিয়েছে, শুধু গত সপ্তাহেই সেখানকার ইনফ্লুয়েঞ্জা আক্রান্ত হয়ে ১,৮৪৯ জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ইনফ্লুয়েঞ্জার পাশাপাশি শরীরে করোনা আক্রান্ত হলে অনেক ক্ষেত্রে তা মারাত্মক আকার ধারণ করতে পারে বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন। এর ফলে নিউমোনিয়া, মায়োকার্ডাইটিসে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা বাড়ে। এর ফলে মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে। এছাড়া ফ্লোরোনা সংক্রমণ হলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও কমে যায় বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

অবশ্য ফ্লোরোনার সংক্রমণ থেকে বাঁচার উপায়ও বাতলে দিয়েছেন চিকিৎসকরা। এই রোগ ঠেকাতে যত দ্রুত সম্ভব করোনার টিকা নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তারা।

এদিকে, ইসরাইলের স্বাস্থ্য বিভাগ শুক্রবার থেকে কারোনার চতুর্থ জোজ দেওয়া শুরু করেছে।

করোনার সর্বশেষ ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রনের ঢেউ শুরু হওয়ার পর দেশটির স্বাস্থ্য বিভাগের মহাপরিচালক নাচম্যান অ্যাশ কম রোধ প্রতিরোধ ক্ষমতা সম্পন্ন এবং বয়স্কদের চতু্র্থ বুস্টার ডোজ দেওয়ার বিষয়টি অনুমোদন দিয়েছেন। দেশটিতে চারমাস আগে করোনার তৃতীয় ডোজ দেওয়া শেষ হয়েছে বলে টাইম অব ইসরাইলের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *