ফাঁসির আসামীকে বিয়ে পড়ানো হয় খালেদার সুচিকিৎসা হয় না: রব

নিজস্ব প্রতিবেদক :: জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি) সভাপতি আ স ম রব বলেছেন, সরকার নির্বাচনের নামে হলি খেলছে। প্রতিদিন এই প্রহসনের নির্বাচনে রক্ত ঝরাচ্ছে। দেশবাসীর মনে এই সরকারের বিরুদ্ধে বিদ্বেষ ও ক্ষোভ ফুসে উঠেছে।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার চিকিৎসা করাচ্ছে না সরকার। অথচ জেলখানায় ফাঁসির আসামীকে বিয়ে পড়ানো হয়। খালেদা জিয়ার মুক্তি দিচ্ছে না, সুচিকিৎসা করছে না। ফাজলামির একটা সীমা আছে। আওয়ামী লীগ সারাজীবন ক্ষমতায় থাকতে পারবে না।

শনিবার (২০ নভেম্বর) রাজধানীর নয়াপল্টনে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশের উন্নত চিকিৎসার দাবিতে গণঅনশনে অংশ নিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

রব বলেন, সরকার আইনের দোহাই দেখাচ্ছে। সরকার চাইলে পারে না এমন কোনো কাজ নেই। আসলে খালেদা জিয়াকে তারা চিকিৎসা করাবে না, কারণ সরকার খালেদা জিয়াকে ভয় পায়।

তিনি বলেন, এই সরকার ১৭ কোটি মানুষকে বন্ধক রেখেছেন। মাথা পিছু লক্ষ টাকা ঋন। দুর্নীতি আর লুটপাট করবেন আপনারা, আর ঋনের বোঝা বহন করবে জনগণ। তা হতে পারে না।

তিনি আরো বলেন, অবিলম্বে খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিয়ে চিকিৎসার ব্যবস্থা করুন। আর যদি তা না করেন তাহলে এই সরকারকে চরম মাশুল দিতে হবে। আ স ম রব দেশের সকল দল ও জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হবার আহবান জানিয়ে বলেন, আসুন দেশকে মুক্ত করি, গণতন্ত্র মুক্ত করি, জনগণকে ভোটাধিকার ফিরিয়ে দেই।

শনিবার সকালে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনের সড়কে এই কর্মসূচি শুরু হয়। এতে স্বাগত বক্তব্য দেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। সরকারের সমালোচনা করে বিএনপির মহাসচিব বলেন, এই ফ্যাসিস্ট সরকার বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিচ্ছে না। শান্তিপূর্ণভাবে দলীয় নেতাকর্মীদের গণ অনশন কর্মসূচি সফল করার আহ্বান জানান তিনি।

দলের প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানীর সঞ্চালনায় গণ অনশনে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ড. আব্দুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস, যুবদলের সভাপতি সাইফুল ইসলাম নীরব, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদের ভূঁইয়া জুয়েল, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, কৃষক দলের সাধারণ সম্পাদক শহীদুল ইসলাম বাবুল, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি’র আহবায়ক আব্দুস সালাম, উত্তর বিএনপি’র আহবায়ক আমানউল্লাহ আমান, ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আকরামুল হাসান মিন্টুসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা অংশ নিয়েছেন।

বিকেল ৪ টা পর্যন্ত চলা গণঅনশন কর্মসূচি থেকে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *