প্রধানমন্ত্রী দুঃখী মানুষের মুখের হাসির দেখতে পছন্দ করেন—- শেখ আফিল উদ্দিন এমপি

আব্দুল্লাহ আল-মামুন, স্টাফ রিপোর্টার : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের অসহায় অবহেলিত মানুষের পাশে দাড়িয়েছেন। এমনিভাবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অসহায় নিপেড়িত মানুষের জন্য সংগ্রাম করে গেছে। একইভাবে আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দুঃখী মানুষের মুখের হাসির দেখতে পছন্দ করেন। তাই অসহায়, অবহেলিত মানুষের জন্য তিনি কাজ করে চলেছেন। যাদের মাথা গোজার ঠাই ছিলনা তারা আজ ঘর সহ জমি পাচ্ছেন। যা স্বাধিনতার পরে কোন সরকার করেনি।

রবিবার (২০ জুন) গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমির মালিকানাসহ গৃহ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় শার্শা উপজেলা অডিটোরিয়ামে ভিডিও কনফারেন্সে অংশ নেন সংসদ সদস্য আলহাজ শেখ আফিল উদ্দিন। ভিডিও কনফারেন্সে শেষে ২য় পর্যায়ে ৫৩টি পরিবারের জমির দলিল সহ ঘরের চাবি তুলে দেন তিনি।

এসময় তিনি আরো বলেন, বর্তমান সরকারের লক্ষ্য বাংলাদেশকে দারিদ্রমুক্ত করা। এর জন্য শিক্ষা ব্যবস্থাকে ঢেলে সজোতে বেশি গুরুত্ব দিয়েছে প্রধানমন্ত্রী। কমিউনিটি ক্লিনিকের মাধ্যমে স্বাস্থ্যসেবা মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিয়েছে। মা ও শিশুর স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করার লক্ষে খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতের পাশাপাশি গৃহহীন মানুষকে ঘরবাড়ি তৈরি করে দিচ্ছে।

সংসদ সদস্য আলহাজ শেখ আফিল উদ্দিন আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শুধুমাত্র গ্রামের অসহায় মানুষের জন্য জমি ঘর বরাদ্দ দেননি। তিনি বস্তিবাসীদের জন্যও ঢাকায় থাকার জন্য ফ্ল্যাট করে দিয়েছেন। গ্রাম পর্যায়ের মানুষের জন্য খাদ্য, শিক্ষা ও বাসস্থান নিশ্চিত করেছেন। তৃণমূল মানুষের জীবন জীবিকা নিশ্চিত করছে। ক্ষমতা থেকে নিজে খাব, নিজে ভালো থাকব, এটা আওয়ামীলীগ সরকার করে না। ক্ষমতা আমাদের কাছে ভোগের বিষয় নয়। কীভাবে মানুষকে ভালো রাখা যায় এটা হলো বড় চাওয়া।

আরো উপস্থিত ছিলেন, শার্শা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল হক মঞ্জু, আওয়ামীলীগ নেতা আসাদুজ্জামান বাবলু, শার্শা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মীর আলিফ রেজা, এসিল্যান্ড রাসনা শারমিন মিথী, শার্শা থানা ওসি বদরুল আলম খাঁন, ছাত্রলীগ নেতা আব্দুর রহিম সরদার সহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *