নড়াইলে স্যালাইনের দাম বেশি নেয়ার প্রতিবাদ করায় রোগীকে মারধরের অভিযোগ

নড়াইল প্রতিনিধি ॥ নড়াইলে স্যালাইনের দাম বেশি নেয়ার প্রতিবাদ করায় আসাদ মোল্যা নামে এক রোগীকে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে ডাক্তারের বিরুদ্ধে।ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার সকাল ১০টার দিকে নড়াইল শহরের রুপগঞ্জ গোহাটা বাসষ্ট্যান্ড এলাকায়।
রুপগঞ্জ গোহাটা বাসষ্ট্যান্ড এলাকার রাজু স্যানেটারীর সত্ত্বাধিকারী মো: আসাদ মোল্যা জানান, গত তিনদিন আগে তিনি শারিরীক অসুস্থতাবোধ করলে রুপগঞ্জ স্বর্ণপট্টি এলাকার বিশ্বাস ফার্মেসীর মালিক ডা: সমীর কুমার বিশ্বাসের শরনাপন্ন হন। তখন ডাক্তার সমীর তাকে অপসোনিন কোম্পানীর ক্লিনোসল নামের একটি স্যালাইন পুশ করেন।উক্ত স্যালাইনের এমআরপি (খুচরা মূল্য) ৩৫২টাকা। স্যালাইন পুশের পর উক্ত স্যালাইনের মূল্য বাবদ ৯শ’টাকা এবং ডাক্তারের ফি বাবদ ২শ’ টাকাসহ মোট ১১শ’টাকা দাবী করেন ডা: সমীর।রোগী আসাদ মোল্যা তখন ডাক্তারকে ৫শ’টাকা দেন এবং বাকী টাকা পরবর্তীতে পরিশোধ করবেন বলে জানান। স্যালাইন গ্রহণের পর আসাদ মোল্যা অন্য ওষধের দোকানে গিয়ে জানতে পারেন পুশ করা স্যালাইনের মূল্য ৩২০টাকা। সোমবার সকাল ১০টার দিকে ডা: সমীর স্যালাইনের বাকী ৬শ’ টাকা আনতে গোহাট এলাকায় গেলে রোগী আসাদ ডাক্তারকে স্যালাইনের সঠিক মূল্য নেয়ার অনুরোধ জানান। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ডা: সমীর প্রথমে ওই রোগী আসাদকে মারপিট করেন। ঘটনার পর আসাদের পরিবারের লোকজন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ডা: সমীরের উপর পাল্টা আক্রমণ চালিয়ে মারপিট করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ডা: সমীর ও রোগী আসাদকে ধরে থানায় নিয়ে যায়।পরে দু’পক্ষের কাছ থেকে মুচলেকা নিয়ে তাদেরকে ছেড়ে দেয়া হয়।
এ ব্যাপারে ডা: সমীরের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, রোগী আসাদকে পুশ করা স্যালাইনের সঠিক মূল্য ধরা হয়েছে। আমি টাকা চাইলে রোগী আসাদ বাকী টাকা দিতে গড়িমসি করেন।একপর্যায়ে তার পরিবারের সদস্যরা এসে আমার উপর হামলা চালায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *