নড়াইলে কৃষক নাজমুল শেখ হত্যা মামলায় নিরীহ লোকজনকে ফাঁসানোর অপচেষ্টা

নড়াইল প্রতিনিধি ॥ নড়াইলের গিলাতলা গ্রামের কৃষক নাজমুল শেখ হত্যা মামলায় নিরীহ লোকজনকে ফাঁসানোর অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে একটি কুচক্রী মহল।পরকীয়ার জের ধরে গত ১৬জুন দিবাগত রাতে দুর্বৃত্তরা নাজমুলকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে গিলাতলা গ্রামের মোকছেদ মল্লিকের জমিতে ফেলে রেখে যায়।পরেরদিন সকালে লোহাগড়া থানা পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে নাজমুলের লাশ উদ্ধার করে।এ ঘটনায় নিহত নাজমুলের স্ত্রী আন্না বেগম বাদি হয়ে ওই গ্রামের গোলাম রব্বানী মোল্যা,তার স্ত্রী এনজেরা বেগম ও গোলাম নবীকে আসামি করে লোহাগড়া থানায় মামলা দায়ের করেন।ঘটনার পর নিহতের স্ত্রী আন্না বেগম তার স্বামীর ও মা অতিরন বেগম তার ছেলের প্রকৃত খুনীদের গ্রেফতারপূর্বক আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়ে আসছেন।
সূত্রে জানা গেছে, ঘটনাটি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে এবং প্রকৃত খুনীদের আড়াল করতে গ্রামের একটি কুচক্রীমহল অপতৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে।নাম প্রকাশ না করার শর্তে গিলাতলা ও আশপাশের বেশ কয়েকজন ব্যক্তি এ প্রতিনিধিকে জানান,গ্রামে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বেশ কিছুদিন ধরে দুটি গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।প্রায় একমাস আগে ওই গ্রামে বিবদমান দুটি গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের পর গণ্যমান্য ব্যক্তির মধ্যস্থতায় বিষয়টি মীমাংশা হয়ে যায়। বর্তমানে গ্রামের উভয় গ্রুপের লোকজন শান্তিপূর্ণ সহাবস্থানে বসবাস করছেন।নাজমুল শেখ হত্যাকান্ডের পর গ্রামের একটি কুচক্রী মহল নিরীহ মানুষকে ফাঁসাতে চেষ্টা করছে। গ্রাম্য দলাদলি কিংবা মারামারির সঙ্গে নাজমুল হত্যার নূন্যতম কোন সম্পৃক্ততা নেই বলে একাধিক ব্যক্তি এ প্রতিনিধিকে জানান। পরকীয়ার জের ধরে নাজমুল হত্যাকান্ডের শিকার হয়েছেন বলে পুলিশও প্রাথমিক তদন্তে জানতে পেরেছে বলে সূত্রে জানা গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *