নায়িকা পরীমনি আটক বাসা যেন মদের বার : র‍্যাব হেফাজতে জিজ্ঞাসাবাদ, রয়েছে ‘সুনির্দিষ্ট’ অভিযোগ, মামলা করবেন নাসির

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা পরীমনিকে আটক করেছে র‌্যাব। গতকাল বুধবার বিকালে রাজধানীর বনানী বাসায় অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ বিদেশি মদ ও মাদকদ্রব্য উদ্ধার করা হয়। এ নিয়ে এক সপ্তাহের মধ্যে ঢাকা থেকে অন্তত চারজন অভিনেত্রী ও মডেলকে মাদকসহ গ্রেফতার করা হলো। ১ আগস্ট দিবাগত রাতে বারিধারা ও মোহাম্মদপুরে পৃথক দুটি অভিযানে বিপুল পরিমাণ মাদকসহ মডেল ফারিয়া মাহবুব পিয়াসা ও মরিয়ম আক্তার মৌকে আটক করে ডিবি। গত ৩১ জুলাই রামপুরায় গৃহকর্মী নির্যাতনের অভিযোগে মাদকসহ চিত্রনায়িকা একাকে আটক করে পুলিশ। ২৯ জুলাই গুলশান থেকে গ্রেফতার হন ব্যবসায়ী হেলেনা জাহাঙ্গীর। তার বাসা থেকেও মাদক উদ্ধার হয়।

যেভাবে আটক হন পরীমনি : গতকাল বিকালে হঠাৎ বনানীতে পরীমনির বাসায় অভিযানে যান র‌্যাব সদস্যরা। এ সময় ভেতর থেকে দরজা লাগিয়ে ফেসবুকে লাইভে এসে পরীমনি থানা-পুলিশ, ডিবি কর্মকর্তা, সাংবাদিক এবং তার পরিচিতজনদের কাছে ফোন করে তাকে বাঁচানোর আহ্বান জানান। বারবার র‍্যাব তাদের পরিচয় দিলেও ভেতর থেকে দরজা খুলছিলেন না তিনি। বিকাল ৪টা ৩৫ মিনিটে দরজা খুললে র‍্যাব সদস্যরা বাসার ভেতরে ঢোকেন। এ সময় তারা লাইভ বন্ধ করে পরীমনিকে অভিযানে সহযোগিতা করার অনুরোধ জানান। অভিযান চলাকালীন সাংবাদিকরা র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈনের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, ‘সুনির্দিষ্ট কিছু অভিযোগের ভিত্তিতে নায়িকা পরীমনির বাসায় অভিযান চালানো হচ্ছে। পরে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে।’ এরপর সন্ধ্যায় র‌্যাবের পক্ষ থেকে জানানো হয়, বিপুল পরিমাণ বিদেশি মদ ও মাদকসহ পরীমনিকে আটক করা হয়েছে।

পরীমনির বাসায় মদের বার! : অভিযানের সময়কার একটি ভিডিও ফুটেজ সাংবাদিকদের হাতে আসে। তাতে দেখা যায় পরীমনির বাসার ভেতরে কয়েকটি কার্টনে ও একটি কাঠের শোকেসে সারিবদ্ধভাবে সাজানো বিদেশি বিভিন্ন ব্র্যান্ডের অসংখ্য মদের বোতল। রয়েছে মদ্যপানের গ্লাসসহ আরও অনেক সরঞ্জাম। র‌্যাবের একটি দায়িত্বশীল সূত্র জানায়, বিদেশি মদের পাশাপাশি পরীর ফ্ল্যাটের কেবিনেট থেকে নিষিদ্ধ মাদক এলএসডি এবং আইসও উদ্ধার করা হয়েছে।

জিজ্ঞাসাবাদের জন্য র‌্যাব সদর দফতরে পরী : অভিযান চলাকালে পরীমনিকে মাদকের উৎসসহ বিভিন্ন বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করেন র‌্যাবের কর্মকর্তারা। অভিযান শেষ হয় রাত ৮টার দিকে। এরপর পরীমনিকে নিয়ে একটি গাড়িতে করে র‌্যাব সদর দফতরের উদ্দেশ্যে রওনা হয় র‌্যাবের আভিযানিক দলটি। র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের উপ-পরিচালক মেজর হুসাইন রইসুল আজম মনি জানান, পরীমনিকে আটকের পর র‍্যাবের সদর দফতরে নেওয়া হচ্ছে। সেখানে তাকে আরও জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

মানহানির মামলা করবেন নাসির ইউ মাহমুদ : এদিকে নায়িকা পরীমনির বিরুদ্ধে মিথ্যা অপবাদ, সম্মানহানি, পারিবারিকভাবে অপদস্থ করাসহ বেশ কিছু বিষয়ে মামলা করবেন বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন মাহমুদ। দুই-একদিনের মধ্যেই তিনি বিমানবন্দর থানায় এই মামলা দায়ের করবেন। নাসির বলেন, আমি মামলা করব। আইনজীবীদের সঙ্গে পরামর্শ করে মামলা করব। আমার সম্পর্কে যে ধরনের অভিযোগ করেছে, সবই মিথ্যা। পারিবারিকভাবে আমাকে হয়রানি করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, নায়িকা পরীমনি দীর্ঘদিন ধরেই আলোচনায় রয়েছেন। কিছুদিন আগে সাভারের বোটক্লাবে যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছেন এমন অভিযোগ করে আলোচনায় আসেন তিনি।

গত ১৩ জুন রাতে নিজের ফেসবুক পেজে দেওয়া এক স্ট্যাটাসে পরীমনি দাবি করেন তাকে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টা করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবর একটি খোলাচিঠি লিখে জড়িতদের বিচারের আওতায় আনারও অনুরোধ জানান তিনি। এরপরই দেশজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়। রাতেই নিজের বাসভবনে সংবাদ সম্মেলন করে পুরো ঘটনার বয়ান দিয়ে নিজের জীবনের শঙ্কার কথা তুলে ধরেন এই চিত্রনায়িকা। এরপর থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রতিবাদ ও নিন্দার ঝড় শুরু হয়। পরদিন ১৪ জুন সকালে সাভার থানায় ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন মাহমুদকে প্রধান আসামি করে ছয়জনের বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টা মামলাও দায়ের করেন চিত্রনায়িকা পরীমনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *