দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি পত্রিকার সম্পাদকের জামিন

নিজস্ব প্রতিবেদক : জামিন পেলেন দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি পত্রিকার সম্পাদক এম.জি কিবরিয়া চৌধুরী। সোমবার (৬ জানুয়ারি) বিকেলে নোয়াখালী বিচারিক আদালতের ৬নং আমলি আদালতের বিচারক মো. সায়দীন নাহি তার জামিন মঞ্জুর করেন বলে গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

এর আগে রোববার রাতে ঢাকার নয়াপল্টনের কার্যালয় থেকে পল্টন থানা পুলিশের সহযোগিতায় নোয়াখালীর সোনাইমুড়ি থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, তমা গ্রুপের মালিক আতাউর রহমান ভূঁইয়া মানিক ২০১৯ সালের ১১ ডিসেম্বর পত্রিকার চেয়ারম্যান মনিরুন্নেছা রিনু ও সম্পাদক এম.জি কিবরিয়া চৌধুরীর বিরুদ্ধে সোনাইমুড়ী থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেন। ওই মামলার ভিত্তিতে রোববার রাতে তাকে গ্রেফতার করে সোনাইমুড়ী থানায় নিয়ে আসা হয়।

সোমবার তাকে আদালতে প্রেরণ করা হলে বিজ্ঞ আদালত শুনানি শেষে তার জামিন মঞ্জুর করেন।

এ ছাড়া আদেশে সোনাইমুড়ী থানার ওসি আবদুস সামাদ ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা রেজাউল হককে শোকজ করা হয় এবং অ-আমল যোগ্য মামলায় আদালতের বিনা অনুমতিতে কিভাবে তাকে গ্রেফতার করা হলো আদালতে স্ব-শরীরে উপস্থিত হয়ে তার জবাব দেয়ার জন্য বিজ্ঞ আদালত আদেশ দেন।

২০১৯ সালের ২৭ নভেম্বর দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি পত্রিকায় “তমা গ্রুপের মানিক হাজার কোটি টাকার মালিক, জামাত-শিবির-বিএনপি হয়ে নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি” শিরোনামে বিশেষ প্রতিনিধির বরাত দিয়ে একটি সংবাদ পরিবেশন করেন। ওই সংবাদে আতাউর রহমান ভূঁইয়া মানিক ক্ষিপ্ত হয়ে ২০১৯ সালের ১১ ডিসেম্বর সোনাইমুড়ী থানায় একটি মানহানির মামলা করেন।

জামিনে মুক্তি পাওয়ার পর কিবরিয়া চৌধুরী তার প্রতিক্রিয়ায় জানান, পুলিশ ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের অপব্যবহার করে সাংবাদিকদের হয়রানি করছে। পুলিশের কাছে তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা আছে কিনা জানতে চাইলে তারা তাকে কোন কথা বলতে দেননি। এ আইনটি প্রণয়নের সঙ্গে তিনি সম্পৃক্ত ছিলেন। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করতে হলে দেশের একমাত্র বিশেষ ট্রাইব্যুনাল আদালত ঢাকাতে রয়েছে। সে আদালতে মামলা করলে বিজ্ঞ আদালত ব্যবস্থা নেবেন। কিন্তু সোনাইমুড়ী থানা পুলিশ এই মামলা রুজু করতে পারে না এবং বিনা ওয়ারেন্টে তাকে গ্রেফতার দেখাতে পারে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *