দেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনার মৃত্যু ৬০ ; আক্রান্ত ৩৯৫৬

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ৬০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ পর্যন্ত করোনায় দেশে মোট মৃত্যু হয়েছে ১৩ হাজার ২৮২ জনের। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৯৫৬ জন। মোট শনাক্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৮ লাখ ৩৭ হাজার ২৪৭ জনে। বুধবার (১৬ জুন) স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে পাঠানো করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। গতকাল করোনায় ৫০ জন মারা গিয়েছিল।

চলমান বিধিনিষেধের মেয়াদ আবারও বাড়িয়েছে সরকার: চলমান বিধিনিষেধের মেয়াদ আবারও বাড়িয়েছে সরকার। করোনার সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আগামী ১৫ জুলাই পর্যন্ত চলবে বিধিনিষেধ। আজ বুধবার (১৬ জুন) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, করোনাভাইরাসজনিত রোগ (কোভিড-১৯) সংক্রমণের বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনায় আগের সব বিধিনিষেধ আরোপের সময়সীমা ১৬ জুন মধ্যরাত থেকে ১৫ জুলাই মধ্যরাত পর্যন্ত বর্ধিত করা হলো।

বিশ্বে করোনা: টানা কিছুদিন হ্রাস পাওয়ার পর আবারও বিশ্বজুড়ে বেড়েছে করোনার প্রকোপ। গেল ২৪ ঘণ্টায় প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ৩ লাখ ৬৩ হাজার ৬৫ জন এবং একই সময়ে করোনায় আক্রান্ত হয়ে নতুন করে মৃত্যুবরণ করেছে ৮ হাজার ৬৮১ জন। এদিকে আগের দিন বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৩ লাখ ২৫৫ জন। এছাড়া আগেরদিন মৃতের সংখ্যা ছিল ৬ হাজার ৬৭১ জন।

বুধবার (১৬ জুন) সকালে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটার থেকে এই তথ্য জানা গেছে।

ওয়ার্ল্ডওমিটারের সবশেষ তথ্য অনুযায়ী, করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যু হয়েছে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশ যুক্তরাষ্ট্রে। তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৩ কোটি ৪৩ লাখ ৫২ হাজার ১৮৫জন আর ৬ লাখ ১৫ হাজার ৭১৭ জন মারা গেছেন।

করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে প্রতিবেশী দেশ ভারত। তবে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের তালিকায় দেশটির অবস্থান চতুর্থ। দেশটিতে মোট আক্রান্ত ২ কোটি ৯৬ লাখ ৩২ হাজার ২৬১ জন এবং মারা গেছেন ৩ লাখ ৭৯ হাজার ৬০১ জন।

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগী ১ কোটি ৭৫ লাখ ৪৩ হাজার ৮৫৩ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৪ লাখ ৯১ হাজার ১৬৪ জনের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *