দেশে আবারো বাড়ছে করোনা আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা

ঢাকা অফিস : মহামারি করোনাভাইরাসে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন আরও ৩৬ জন। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১২ হাজার ৬১৯ জনে। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে করোনা পজিটিভ হয়েছেন আরও ১ হাজার ৭১০ জন। এ নিয়ে দেশে এখন পর্যন্ত মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৮ লাখ ৫৪০ জন।

সোমবার (৩১ মে) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৫৬৭ জন। এ নিয়ে মোট সুস্থ হয়েছেন ৭ লাখ ৪০ হাজার ৩৭২ জন। এদিন মোট করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১৮ হাজার ১৭৮ জনের। শনাক্তের হার ৯ দশমিক ৪১ শতাংশ।

বিশ্বকরোনা: বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসের থাবায় একরকম বিধ্বস্ত। প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ যোগ হচ্ছে করোনার মৃত্যু মিছিলে। তবে গত ২৪ ঘণ্টায় আগের থেকে কমেছে মৃত্যু ও শনাক্তের সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছে বিশ্বের ৮ হাজার ৯২ জন মানুষ। এদিকে একই সময়ে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে আরও ৪ লাখ ৬৭৯ জন। সোমবার (৩১ মে) সকাল সাড়ে ৮টার পর্যন্ত আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে এ তথ্য জানা যায়। এদিকে এ পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৭ কোটি ১০ লাখ ১৮ হাজার ৯০১ জন। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৩৫ লাখ ৫৬ হাজার ৫৮৩ জনের। বিশ্বজুড়ে নতুন করে সুস্থ হয়েছে ৫ লাখ ৮৬ হাজার ৮৪৫ রোগী। ফলে মোট সুস্থ হয়ে উঠেছে ১৫ কোটি ৩১ লাখ ১১ হাজার ৬৪৭ জন।

বিশ্বে করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় সবার ওপরে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ৩ কোটি ৪০ লাখ ৪৩ হাজার ৬৮ জন। এরমধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৬ লাখ ৯ হাজার ৫৪৪ জনের। আর সুস্থ হয়েছেন ২ কোটি ৭৮ লাখ ৪০ হাজার ৮৮৪ জন।

তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ভারত। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ২ কোটি ৮০ লাখ ৪৬ হাজার ৯৫৭ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। মৃত্যু হয়েছে ৩ লাখ ২৯ হাজার ১২৭ জনের। আর সুস্থ হয়েছেন ২ কোটি ৫৬ লাখ ৬৮ হাজার ৫২৯ জন।

তৃতীয় স্থানে রয়েছে ব্রাজিল। লাতিন আমেরিকার দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ১ কোটি ৬৫ লাখ ১৫ হাজার ১২০ জন। মৃত্যু হয়েছে ৪ লাখ ৬২ হাজার ৯২ জনের। আর সুস্থ হয়েছেন ১ কোটি ৪৯ লাখ ১২ হাজার ৭৪৪ জন।

সংক্রমণ ও মৃত্যুর তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ৩৩তম। দেশে এখন পর্যন্ত ৭ লাখ ৯৮ হাজার ৮৩০ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এরমধ্যে মারা গেছেন ১২ হাজার ৫৮৩ জন। আর সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৭ লাখ ৩৮ হাজার ৮০৫ জন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *