ত্রিশালবাসীকে ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন হাসান মাহমুদ

এনামুল হক:-সারা বিশ্ব আজ কোভিড(১৯) আক্লান্ত। মানুষ আজ কর্মহীন হয়ে পড়ায় অসহায় হয়ে পড়ছে জীবন-জীবিকা। প্রতিবারই ঈদ আসে এবারও আসছে,কিন্তু এবারের ঈদের পরিবেশটা চিরাচরিত নয়। পুরোটাই বদলে গেছে চারপাশটা যেন নিরব-নিস্তব্দ আর জনশুন্য রাস্তা-ঘাট মার্কেট। মানুষ আজ করোনা ভয়ে আঙ্কিত । এরই মাঝে আসন্ন ঈদুল আযহা যা সারা বিশে^র সকল মুসলমানদের আনন্দের উৎসব। ঈদ আসে আনন্দ আর সীমাহীন প্রেম প্রীতি ও কল্যাণের বার্তা নিয়ে। ঈদ শব্দটির সাথে আমরা ছোট বড় সকলেই পরিচিত। ঈদের কথা শুনলেই সবার মাঝে কেমন যেন আনন্দের জোয়ার বয়ে যায়। ছোটরা বুঝুক আর না বঝুক তারা মনে করে এ দিনটি আনন্দের ,খুশির ও উৎসবের, দিনে নতুন জামা কাপড়ে সাজবে ও ভাল খাবার খাবে। তাই এ ঈদ সকল কালিমা আর কুলষতাকে ধুয়ে হিংসা বিদ্বেষ ভুলে সকলকে ভালবাসা ও প্রীতির বন্ধনে আবদ্ব করে।
প্রবিত্র ঈদুল –আযহার ২০২০ উপলক্ষে ত্রিশালবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ত্রিশাল উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি হাসান মাহমুদ।
তিনি বলেন,ঈদ সারাবিশ্বের মুসলমানদের জন্য নিয়ে আসে আনন্দের বার্তা। সকল ভেদাভেদ ভুলে সকল শ্রেনি-পেশার মানুষকে এক সাড়িতে দাড় করায় ঈদ।
তিনি আরও বলেন বর্তমান সরকার কর্মহীন মানুষের জন্য ত্রানের ও নগদ অর্থের ব্যাবস্থা করছে।
ত্রিশাল উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি হাসান মাহমুদ বলেন,ধর্ম বিষয়ক সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি হাফেজ রুহুল আমিন মাদানীর নির্দেশে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে তালিকা করে প্রতিদিন খাদ্যসহায়তা পৌছে দিচ্ছি মানুষের ঘরে-ঘরে। প্রথম পর্যায়ে পৌরসভা শেষ করে ইউনিয়ন ভিত্তিক খাদ্য বিতরণ চলছে।
তিনি আশা করেন করোনা ভাইরাসের মহামারী কেটে গেলে অর্থনৈতিক বৈসম্য দুর হয়ে মানুষের আর্থ-সামাজিক ও ধর্মীয় অবস্থার ব্যাপক উন্নয়ন সাধন হবে।
ঈদ হল খুশি আর আনন্দের উৎসব। শান্তি সম্প্রীতির উৎসব। তিনি আগামী দিনেও দেশে ও ত্রিশাল উপজেলায় এই শান্তি সম্প্রীতি বজায় থাকুক এই কামনা করেন। ঈদুল আযহার শিক্ষা আমাদের একটি সুন্দর ও সমৃদ্ধ সমাজ গঠনে উদ্বুদ্ধ করবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।
তিনি ঈদ আনন্দে সবার জীবন ভরে উঠুক এই প্রত্যাশায় সকলকে ঈদুল-আযহার অগ্রিম শুভেচ্ছা এবং সকরের দোয়া ও সহযোগিতা কামনা করেন। প্রিয় ত্রিশালবাসী আপনারা দয়া করে ঘরেই ঈদ আনন্দ উপভোগ করুন করোনা প্রতিরোধে সহযোগিতা করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *