তালেবানের ‘ক্ষমতা ও কর্তৃত্ব’ মেনে নিল ভারত

কাবুল, ১৩ সেপ্টেম্বর- আফগানিস্তানে তালেবান বাহিনীর ‘ক্ষমতা ও কর্তৃত্বের অবস্থান’ স্বীকার করে নিয়েছে ভারত। তবে তালেবান সরকারকে এখনও স্বীকৃতি দেয়নি মোদি সরকার।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জানিয়েছে, ভারতের পক্ষে এই প্রথম একটি দেশের ক্ষমতায় থাকা শক্তি হিসেবে তালেবানকে স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে।

রোববার ভারত অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে একটি যৌথ বিবৃতিতে স্বীকার করেছে, তালেবান আফগানিস্তানে ক্ষমতা ও কর্তৃত্ব দখল করেছে।

তবে সরকারিভাবে একটি দেশের সরকার হিসাবে তালেবানকে এখনও স্বীকৃতি দেয়নি বিশ্বের অধিকাংশ দেশ। যাদের মধ্যে ভারত ছাড়াও রয়েছে অস্ট্রেলিয়া।

গত সপ্তাহে আফগানিস্তানে নতুন সরকার তৈরির ঘোষণা করেছে তালেবান। ইতোমধ্যেই তালেবান সরকারকে স্বীকৃতি দিয়েছে চীন, পাকিস্তান, রাশিয়া, কাতার, তুরস্কসহ বেশ কয়েকটি দেশ।

তবে বিশ্বের অধিকাংশ দেশই এখনও সেই পথে হাঁটেনি। ভারত আফগানিস্তানের পরিস্থিতির ওপর প্রতিনিয়ত নজর রাখছে। সে দেশে আটকে থাকা ভারতীয়দের দেশে ফেরানোই এখন একমাত্র লক্ষ্য দিল্লির কাছে।

সূত্রের বরাতে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস আরও জানিয়েছে, গত সপ্তাহে তালেবান সরকারের ঘোষণার পর থেকে লাগাতার পরিস্থিতির ওপর নজর রাখছে দিল্লি। একটানা কয়েকদিন আলোচনার পর আফগানিস্তানে তালেবানর ক্ষমতা ও কর্তৃত্ব দখলকে স্বীকৃতি দিল ভারত।

আফগানিস্তানের পরিস্থিতি নিয়ে ভারতের পাশাপাশি উদ্বেগে প্রকাশ করেছে অস্ট্রেলিয়াও। ইতোমধ্যেই ভারতে গিয়ে সেকথা ব্যক্ত করেছেন অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

সূত্রঃ যুগান্তর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *