তালা উপ-শহরের রাস্তার বেহাল দশা, নজর নেই কর্তৃপক্ষের

বোরহান উদ্দীন, তালাঃ দীর্ঘদিন সংস্কার না করার কারণে চলাচলের অনুপোযোগী হয়ে পড়েছে তালা টু কপিলমুনি মেইন রোডের অধিকাংশ অংশ। রাস্তার অধিকাংশ স্থানে গর্তেও সৃষ্টি হওয়ায় প্রতিনিয়তই যানবাহন চালক, যাত্রীসহ সাধারণ মানুষের ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। সংস্কার করা না হলে রাস্তাটি একেবারেই চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়বে। জনগুরুত্বপূর্ণ রাস্তা হওয়া সত্বেও দেখেও দেখেনা স্থানীয় প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি সহ অন্যরাও।

প্রকাশ,দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর অবশেষে আঠরোমাইল ভায়া তালা টু পাইকগাছা-কয়রা সড়ক উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ৬০ কিলোমিটার রাস্তা একনেক থেকে অনুমোদন হয়ে টেন্ডার হয়েছে। ৩৩৯ কোটি ৫৪ লাখ টাকা বরাদ্দের কাজ পেয়েছেন মোজাহার এন্টার প্রাইজ নামের প্রতিষ্ঠান। ইতি মধ্য প্রতিষ্ঠানটি কাজ শুরু করলেও চলছে ধীরগতিতে।

সরজমিনে দেখা যায়,৬০ কি:মি রাস্তাটি সাতক্ষীরা জেলা তালা উপজেলার বুক চিরে কপিলমুনি হয়ে পাইকগাছায় উঠেছে। দীর্ঘ সড়কের তালা উপজেলার তালা বাজার,গোনালী বাজার, শাহাপুর বাজারের শতাধিক স্থানে পিচের ঢালাই উঠে বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এরমধ্য উপজেলা প্রাণকেন্দ্র তালা বাজারের রাস্তাটির বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে। সামান্য বৃষ্টিতেই এসব গর্তে পানি জমছে। এতে সড়ক দিয়ে যাওয়ার সময় প্রায়ই যানবাহনের চাকা সড়কে আটকে যাচ্ছে। এতে যাত্রীরাও ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন। এ ছাড়া প্রতিনিয়তই এই সড়কটি ব্যবহার করে দক্ষিণ-পশ্চিমঞ্চালের মানুষ, যানবাহন চলাচল করে। পাইকগাছা-কয়রা এলাকায় প্রবেশ করার একমাত্র সড়ক হওয়ার সত্বেও কর্তৃপক্ষ সড়কটি সংস্কারের উদ্যোগ নিচ্ছে না।

“হেল্প” সংগঠনের সভাপতি ও সুনামের সাধারন সম্পাদক এসএম হাসান আলী বাচ্চু এবং “হেল্প” সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক বিএম বাবলুর রহমান জানান, রাস্তাটি দক্ষিণ পশ্চিমঞ্চালে এলাকার মানুষের চলাচলের একমাত্র পথ হওয়ায় মহাদুর্ভোগের মধ্য দিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে তাদের।শুকনো মৌসুমে চলাচল করা গেলেও দুর্ভোগে পড়তে হয় বর্ষা মৌসুমে। দিনে কিংবা রাতে চলাচলের সময় রাস্তার ছোট-বড় গর্তে উল্টে পড়তে হয় ব্যাটারি চালিত ভ্যান, ভ্যানগাড়ি, মোটরসাইকেলসহ ছোটখাটো যানবাহনের। তবু এই রাস্তা সংস্কার করার কোনো উদ্যোগ নেয়নি সংশ্নিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

এই রাস্তা দিয়ে নিয়মিত চলাচলকারী বিভিন্ন পথচারী, বিভিন্ন ব্যবসায়ী সহ জন সাধারণ অনেকে জানান, বর্তমানে এই রাস্তার অবস্থা খুবই নাজুক। রাস্তার মাঝে মাঝে পিচের কার্পেটিং উঠে গিয়ে ছোট-বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। কয়েকদিনের টানা বর্ষণে ছোট-বড় গর্তে পানি জমে থাকায় ভোগান্তি চরমে। এছাড়া বর্তমানে তালার এই সড়কটিতে বেড়েছে দূর্ঘটনার হার। তবু এই রাস্তা সংস্কার করার কোনো উদ্যোগ নেয়নি সংশ্নিষ্ট কর্তৃপক্ষ। দ্রুত এই রাস্তা সংস্কার করার দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

এ ব্যাপারে তালা উপজেলা প্রকৌশলী রথীন্দ্র নাথ হালদার জানান, রাস্তাটি আমাদের অধীনে না। এটি রোডস এন্ড হাইওয়ের অধীন,ওনারায় রাস্তাটির সংস্কার করতে পারবেন। আপনারা(সাংবাদিক) একটু কথা বলেন তাদের সাথে। আসলে তালা বাজারের মধ্যে রাস্তার অবস্থা খুবই নাজুক।

এ বিষয়ে রোডস এন্ড হাইওয়ে খুলনা জোনের এডিশনাল চিফ ইজ্ঞিনিয়ার সৈয়দ আসলাম আলীর সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তা সম্ভব হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *