টিকার জন্য হুমকি, ব্রিটেনে পাড়ি জমালেন সিরাম সিইও

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী থেকে শুরু করে কর্পোরেট কর্মকর্তাসহ একাধিক প্রভাবশালী ব্যক্তি করোনার টিকার জন্য ভারতের টিকা প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান সিরাম ইনস্টিটিউটের সিইও আদর পুনাওয়ালাকে চাপ দিয়ে আসছিলেন। বাধ্য হয়ে তাই ভারতীয় ফ্লাইটগুলোর ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি হওয়ার আগেই দেশ ছেড়ে ব্রিটেনে পাড়ি জমিয়েছেন আদর।

ভারত যখন করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ে পর্যুদস্ত, ঠিক তখন ব্রিটিশ সংবাদপত্র ‘দ্য টাইমস’-এর বরাত শনিবার এমন চাঞ্চল্যকর খবর জানিয়েছে কলকাতার গণমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা।

‘দ্য টাইমস’-এর প্রতিবেদন অনুযায়ী, কোভিশিল্ড টিকার জন্য পুনাওয়ালাকে বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী, বিভিন্ন ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা এবং অন্যান্যরা ফোন করতেন। দ্রুত টিকা পাওয়ার দাবি জানাতেন তারা।

ব্রিটিশ গণমাধ্যমটিকে পুনাওয়ালা বলেছেন, ‘হুমকি বললে কম বলা হয়। মানুষের আশা এবং আগ্রাসন অভূতপূর্ব। এটা আশ্চর্যজনক। প্রত্যেকেই মনে করছেন, তার টিকা পাওয়া উচিত। তারা এটা বুঝতে চাইছেন না, কেন অন্যদেরও তাদের আগে টিকা পাওয়া উচিত।’

পুনাওয়ালা ওই ব্রিটিশ সংবাদপত্রটিকে আরও বলেন, ‘ওরা বলছে, তুমি যদি টিকা না দাও তা হলে ফল ভালো হবে না … এটা খারাপ ভাষা নয়। কিন্তু বলার ধরনটা খারাপ। ওদের কথা না শুনলে ওরা কী করতে পারে সেটাই এর অন্তর্নিহিত অর্থ। এমন হুমকি আসছেই এবং তাদের দাবি না মানা পর্যন্ত কোনো কাজই করতে দিচ্ছে না।’

সম্প্রতি পুনাওয়ালাকে ‘ওয়াই’ ক্যাটাগরির নিরাপত্তা দিয়েছিল ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার।

‘দ্য টাইমস’-এর দাবি, পুনাওয়ালা ব্রিটেনে কিছুদিন কাটাবেন বলে জানিয়েছেন। এমনকি তিনি উল্লিখিত পরিস্থিতিতে দেশে ফিরতে চান না বলেও জানিয়েছেন।

প্রতিবেদন অনুযায়ী পুনাওয়ালা বলেন, ‘সব ভার আমার কাঁধে। কিন্তু আমি একা তা বহন করতে পারব না।’

তবে পুনাওয়ালা যে হঠাৎই দেশ ছেড়েছেন মোটেই এমন দাবি করছে না ব্রিটিশ গণমাধ্যমগুলো। তাদের দাবি, অনেক দিন ধরেই ভারত ছাড়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন সিরাম সিইও। লন্ডনের মেফেয়ার এলাকায় ২৫ হাজার স্কয়ার ফুটের বাড়িও ভাড়া নিয়েছিলেন তিনি। ভারতীয় মুদ্রায় যার ভাড়া সপ্তাহে ৫১ লাখ রুপি।

এছাড়া ‘দ্য টাইমস’-এর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পুনাওয়ালার ব্রিটেন সফরের সঙ্গে আংশিকভাবে জড়িয়ে আছে ভারতের বাইরে করোনার টিকা উৎপাদনের ব্যাপারটিও।

পুনাওয়ালা তাদেরকে বলেছেন, ‘শিগগিরই এ বিষয়ে ঘোষণা দেবেন তিনি।’ এমন ঘোষণা এলে তা নিঃসন্দেহে ভারতের জন্য হুমকিস্বরূপ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *