চৌগাছা প্রেসক্লাবের নবনির্বাচিত কমিটির সাথে উপজেলা আওয়ামীলীগের মতবিনিময়

আব্দুল আলীম, চৌগাছা (যশোর)  : যশোরের চৌগাছা প্রেসক্লাবের নবনির্বাচিত কমিটির সাংবাদিক নেতাদের সাথে চৌগাছা উপজেলা আওয়ামী লীগের মতবিনিময় অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (৯ মার্চ) সন্ধ্যায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী মাসুদ চৌধুরীর কার্যালয়ে এই মতবিনিময় অনুষ্ঠিত হয়।
উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা এসএম হাবিবুর রহমান এতে সভাপতিত্ব করেন। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ফুলসারা ইউপি চেয়ারম্যান মেহেদী মাসুদ চৌধুরী, সহ-সভাপতি সিরাজুল ইসলাম রাজ, প্রেসক্লাবের নবনির্বাচিত সভাপতি ও ভোরের কাগজের চৌগাছা প্রতিনিধি জিয়াউর রহমান রিন্টু, সাধারণ সম্পাদক ও সমাজের কথার চৌগাছা প্রতিনিধি অমেদুল ইসলাম, সহ-সভাপতি হুমায়ুন কবির সোহেল, যুগ্ম সম্পাদক ও দৈনিক কল্যানের পৌর প্রতিনিধি হারুন অর রশীদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পাশাপোল ইউপি চেয়ারম্যান অবাইদুল ইসলাম, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাজনীন নাহার পপি, সুখপুকুরিয়া ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি তোতা মিয়া, সিংহঝুলি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শামসুর রহমান টিয়ে, উপজেলা আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ আসাদ চৌধুরী, দপ্তর সম্পাদক মাহবুবুল আলম রিংকু, সহ-দপ্তর সম্পাদক শফিক হায়দার লাভলু, প্রেসক্লাবের কোষাধ্যক্ষ আসাদুজ্জামান মুক্ত, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক বাবুল আক্তার, সাংগঠনিক সম্পাদক শ্যামল দত্ত, পত্রিকা বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল আলীম (দৈনিক আমার সময়), ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক এম এ রহিম, দপ্তর সম্পাদক এইচএম ফিরোজ হোসেন, নির্বাহী সদস্য আলমগীর কামাল, আব্দুল্লাহ আল মামুন, দৈনিক আমাদের সময়ের চৌগাছা প্রতিনিধি আজিজুর রহমান, দৈনিক ভোরের দর্পনের চৌগাছা প্রতিনিধি শরিফুল ইসলাম, দৈনিক ভোরের ডাকের চৌগাছা প্রতিনিধি শফিকুল ইসলাম, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক বিএম শফিকুজ্জামান রাজু, ছাত্রলীগ নেতা আব্দুল করিম, রুবেল হোসেন প্রমুখ।
উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সম্পাদক সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বক্তব্যে বলেন আপনারা বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতার মাধ্যমে চৌগাছার সমস্যা ও সম্ভাবনা দেশবাসির নিকট তুলে ধরবেন বলে আমরা আশা করছি। তারা বলেন চৌগাছা উপজেলা দেশের স্বাধীনতার প্রবেশদ্বার। এই উপজেলার সীমান্ত দিয়েই ভারতীয় মিত্র বাহিনী এদেশে প্রবেশ করে পাক হানাদারদের পরাজিত করে। এখানে রয়েছে কয়েকটি স্বাধীনতার যুদ্ধক্ষেত্র। এই উপজেলার জগন্নাথপুরের যুদ্ধক্ষেত্রে অস্ত্রগোলাবারুদ ফুরিয়ে যাবার পর উভয় বাহিনী হাতাহাতি যুদ্ধে লিপ্ত হয়। এই উপজেলার রয়েছে মহান মুক্তিযুদ্ধের এক সমৃদ্ধ ইতিহাস। আপনাদের লেখনির মাধ্যমে এগুলো দেশীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে তুলে ধরতে হবে। চৌগাছা-যশোর সড়কের নাম বর্তমান সরকার স্বাধীনতা সড়ক ঘোষণা করেছে উল্লেখ করে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা এসএম হাবিব বলেন, শুধুমাত্র চৌগাছা পর্যন্ত এসেই এই সড়ক শেষ হলে হবে না। ভারতের বয়রা থেকে যে সড়ক হয়ে চৌগাছার কাবিলপুরে কপোতাক্ষ নদ পার হয়ে মুক্তিবাহিনী এদেশে প্রবেশ করেছিলেন সেই পর্যন্ত চারলেনের সড়ক করে স্বাধীনতা সড়ক নাম দিলে তবেই সেটি পূর্ণতা পাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *