করোনায় বিশ্বব্যাপী মৃত ৬৪ হাজার ছাড়ালো, আক্রান্ত ১২ লাখ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : প্রতিনিয়তই হু হু করেই বেড়ে চলেছে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা্। একই সঙ্গে বাড়ছে আক্রান্ত ও আতঙ্ক। যার ফলে পুরো বিশ্বে করোনা নিয়ে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। ধ্বংস হচ্ছে বিশ্ব অর্থনীতি। গত বছরের পর থেকে এখন পর্যন্ত প্রাণঘাতী এ ভাইরাসে মৃত্যু হয়েছে ৬৪ হাজার ৬৬৭ জনের। এছাড়া আক্রান্ত ১২ লাখ মানুষ। আর এ রোগে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে প্রায় আড়াই লাখ। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া এ ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যায় সবার উপরে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে দ্রুতগতিতে বাড়ছে করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। এখন পর্যন্ত দেশটিতে ৩ লাখ ৮ হাজার ৬০৮ মানুষ এতে আক্রান্ত হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে মৃত্যু হয়েছে ৮ হাজার ৩৯৭ জনের। দেশটিতে করোনাভাইরাসে সবচেয়ে বিপর্যস্ত জনবহুল নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্য। গত ২৪ ঘণ্টায় সেখানে করোনাভাইরাস সংক্রমিত কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত হয়ে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু রেকর্ড করা হয়েছে।

সিএনএন’র প্রতিবেদনে অনুযায়ী, নিউইয়র্কের গভর্নর অ্যান্ড্রু কুমো শনিবার (৪ এপ্রিল) এক সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন, গত একদিনে সেখানে করোনায় আক্রান্ত ৬৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে শুধু নিউইয়র্কেই মৃতের সংখ্যা এখন ৩ হাজার ৫৬৫। শুধু মৃত্যু নয়, আক্রান্তের দিক দিয়েও যুক্তরাষ্ট্রে নিউইয়র্কের অবস্থান সবার উপরে।

করোনাভাইরাসে সবচেয়ে বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে ইউরোপের দেশ ইতালিতে। এতে আক্রান্ত হয়ে দেশটিতে এখন পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ১৫ হাজার ছাড়িয়েছে। করোনায় মৃত্যুর দিক থেকে ইতালির অবস্থান সবার উপরে।

ইতালির সিভিল প্রটেকশন এজেন্সির দেয়া হিসাব অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে আরও ৬৮১ জন করোনাভাইরাসে মারা গেছে। ইতালিতে এখন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা ১৫ হাজার ৩৬২ জন। মহামারি এই ভাইরাসে বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে ইতালিতে মৃতের সংখ্যা ১৫ হাজার ছাড়াল।

এদিকে করোনাভাইরাসে বিপর্যস্ত স্পেনে মৃত্যুর মিছিল যেন থামছেই না। জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে স্পেনের প্রধানমন্ত্রী পেদ্রো শানচেজ বলেছেন, ‘আমরা এখন আমাদের জীবনের সবচেয়ে বড় সংকটের মুখোমুখি।’

স্পেনে একদিনে আরও ৬ হাজার ৯৬৯ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ১ লাখ ২৬ হাজার ১৬৮ জনে। স্পেনে করোনাভাইরাসে মোট ১১ হাজার ৯৪৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।

করোনাভাইরাসে ফ্রান্সে মোট ৭ হাজার ৫৬০ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর দেশটিতে প্রাণঘাতী এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে আরও ৭ হাজার ৭৮৮ জন। এ নিয়ে ফ্রান্সে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৮৯ হাজার ৯৫৩।

এদিকে ভারতে করোনাভাইরাস সংক্রমিত কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে প্রাণঘাতী এ ভাইরাসে ৫২৫ জন আক্রান্ত হয়েছে, আর এতে মৃত্যু হয়েছে ১৩ জনের।

ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, বর্তমানে দেশটিতে সবমিলিয়ে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ হাজার ৭২ জন। এর মধ্যে মোট ৭৫ জনের মৃত্যু হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *