এসপিসির সিইও ও নিরাপদ শপের পরিচালক গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক : ই-কমার্সের নামে প্রতারণার বিরুদ্ধে চলমান অভিযানে আরও তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ-সিআইডি। এর মধ্যে এসপিসি ওয়ার্ল্ড এক্সপ্রেস লিমিটেড নামে একটি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের সিইও এবং ‘নিরাপদ শপ’ এর পরিচালকসহ তিনজন রয়েছেন।

রবিবার রাজধানীতে পৃথক অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। তবে তাৎক্ষণিকভাবে তাদের নাম জানায়নি সিআইডি। সন্ধ্যায় সিআইডির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) আজাদ রহমান এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, এ ব্যাপারে আগামীকাল সোমবার সিআইডি সদরদপ্তরে সাংবাদিক সম্মেলনে বিস্তারিত জানানো হবে।

সিআইডি সূত্রে জানা গেছে, এসপিসি ওয়ার্ল্ড এক্সপ্রেস লি. বাংলাদেশের একটি অনলাইন ভিত্তিক ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম। তারা অনলাইনে বিভিন্ন পরিষেবা দিয়ে থাকে। এছাড়া তাদের প্রস্তুতকারক পণ্যদ্রব্য সরাসরি সরবরাহ করে থাকে। ব্যবহারকারী স্বাভাবিকের চেয়ে কম মূল্যে কিনতে পারে।

সূত্র বলছে, অল্প কয়েক বছরের মধ্যে দেশের সবচেয়ে নামিদামি হাসপাতাল, মিল, ফ্যাক্টরি, কারখানা, গার্মেন্টসের অংশীদারত্ব হবে আপনার, পাশাপাশি আসবে নগদ টাকা এমন প্রলোভনে এসপিসি ওয়ার্ল্ড এক্সপ্রেস কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। এছাড়া সদস্য সংখ্যা বাড়াতে পারলে কিছু দিনের মধ্যে টাকা দ্বিগুণ হবে এমন প্রলোভনও দেখাতো প্রতিষ্ঠানটি। প্রতারণার এমন অভিযোগে এসপিসি ওয়ার্ল্ড এক্সপ্রেসের সিইও আল-আমিন গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

একইভাবে ‘নিরাপদ শপ’ও এক ধরনের ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। তারা কমমূল্যে পণ্য বিক্রির প্রলোভন দেখিয়ে বিপুল অর্থ হাতিয়ে নিয়েছে।

সম্প্রতি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের প্রতারণার নানা অভিযোগ সামনে আসতে থাকে। এর প্রেক্ষাপটে ইতিমধ্যে ইভ্যালি, ই-অরেঞ্জসহ বিভিন্ন ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। সরকারও ই-কমার্স খাতকে জবাবদিহিতার আওতায় আনার প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *