ঈদ-উল ফিতরের ছুটি শেষে বেনাপোল বন্দর খুলেছে

আসাদুজ্জামান আসাদ : পবিত্র ঈদ-উল ফিতরের ছুটি শেষে বেনাপোল বন্দর খুলেছে তবে বৈরি আবহাওয়ায় প্রচন্ড গরমে হ্যান্ডেলিং শ্রমিকরা স্বস্থির সাথে কাজ করতে পারছেন না।

আগামী শনিবারের আগে  কর্মচাঞ্চল্য ফিরবে না বলে দাবি ব্যবসায়ীদের ।

বেনাপোল শুল্কভবনের চেকপোস্ট কার্গো শাখার রাজস্ব কর্মকর্তা মিজানুর রহমান জানান,পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে নয় দিন বেনাপোল-পেট্রাপোল বন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ থাকার পর রোববার সকাল থেকে দুই দেশের মধ্যে পুনরায় আমদানি-রফতানি কার্যক্রম শুরু হলেও চলছে ঢিমেতালে । তবে ২/১ দিনের মধ্যে পুরোদমে কাজ শুরু হবে বলে তিনি আশা করছেন ।

বেনাপোল সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টস অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক এমদাদুল হক লতা বলেন, দেশের ৭৫ ভাগ শিল্প প্রতিষ্ঠানের কাঁচামালের পাশাপাশি বিভিন্ন খাদ্যদ্রব্য আসে এই বন্দর দিয়ে। তবে আমদানিকারকরা গ্রামে ঈদ করতে যাওয়ায় এখনো ঢাকায় তাদের অফিস খোলেনি । তাই বন্দর থেকে পণ্য খালাসও তেমন নেওয়া হচ্ছে না ।পুরোপুরি কাজ শুরু হতে শনি রোববার লেগে যাবে বলে তিনি মনে করেন।

ভারতের পেট্রাপোল বন্দরের ক্লিয়ারিং এজেন্ট স্টাফ ওয়েল ফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক কার্তিক চক্রবর্তী বলেন, ঈদুল ফিতরের সরকারি ছুটিতে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে টানা নয় দিন আমদানি-রপ্তানি বন্ধ থাকায় তীব্র ট্রাকজটের সৃষ্টি হয়েছে পেট্রাপোল বন্দর এলাকায় । বেনাপোল বন্দরে প্রবেশের অপেক্ষায় শত শত পণ্যবাহী ট্রাক বন্দর এলাকা, বন্দরের ট্রাক টার্মিনাল, পেট্রাপোল পার্কিং ও বনগাঁ পার্কিংয়ে দাঁড়িয়ে আছে বলে তিনি জানান।

বেনাপোল বন্দর হ্যান্ডেলিং শ্রমিক ইউনিয়ন (রেজিঃ ৮৯১) সভাপতি কলিম উল্যা কলি বলেন, বৈরি আবহাওয়ায় প্রচন্ড গরমের কারনে হ্যান্ডেলিং শ্রমিকরা স্বস্থির সাথে কাজ করতে পারছেন না।
শ্রমিকদের অপর সংগঠন বেনাপোল বন্দর হ্যান্ডেলিং শ্রমিক ইউনিয়ন (রেজিঃ ৯২৫) সভাপতি  রাজু উদ্দিন বলেন, এক সপ্তাহ ধরে বৃষ্টির দেখা নেই তাই প্রচন্ড তাপাদহে শ্রমিকরা কাজ এগিয়ে নিতে পারছে না ।

বেনাপোল স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষের উপ-পরিচালক (ট্রাফিক) মামুন তরফদার বলেন,বন্দরে পণ্যজট কমাতে দ্রুত পণ্য খালাসের জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে ।তবে প্রচন্ড গরমে বন্দর অভ্যন্তরে কিম্বা ওপেন ইয়ার্ডে হ্যান্ডেলিং শ্রমিকরা কাজ করতে হিমশিম খাচ্ছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *