আলমডাঙ্গায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবলের ফাইনাল খেলায় ছেলুন এমপি

আলমডাঙ্গা অফিসঃ আলমডাঙ্গা জাতীর পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুুজিবর রহমান গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট (অনুর্ধ-১৭) ফাইনালে হারদী ইউনিয়ন একাদশ কে গোল্ডেন গোলে হারিয়ে কুমার ইউনিয়ন জয়ি।খেলায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দার ছেলুন এমপি।তিনি বলেন আজ আমি ফুটবল খেলা দেখতে এসে অভিভুত,দর্শক আবারও প্রমান করল ফুটবল খেলাই সব চাইতে জনপ্রিয় খেলা।মাত্র ১ ঘন্টা ৩০ মিনিটে দর্শক যে আনন্দ উপভোগ করে তা অন্য কোন খেলায় এত দর্শক আনন্দ পায় বলে আমার জানা নেই।আজ আমি ঘোষনা দিচ্ছি আলমডাঙ্গা “এ” টিম মাঠেই শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম নির্মান করা হবে।এ বিষয়ে ইউএনও সাবেবের সাথে কথা হয়েছে,কাগজ পত্র দরখাস্ত সহ যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রনালয়ে পাঠানোর জন্য।খেলোয়াড়দের উদ্দেশ্যে বলেন সুস্থ দেহ সুস্থ মন,খেলা ধুলার কোন বিকল্প নেই।তোমরা প্রতিদিন অনুশিলন না করলে দম শক্তি থাকবে না,ফুটবল খেলায় দম অত্যান্ত গুরুত্ব পুর্ন।খেলায় হারজিৎ থাকবে আজ যে দল জয় লাভ করেছে,যারা হেরেছে তারা আগামিতে এই শিক্ষা কাজে লাগিয়ে তাদের পরাজিত করবে,জয়িরা তাদের জয় ধরে রাখতে আবারও মরিয়া হয়ে খেলবে।সভায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ লিটন আলীর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,   উপজেলা ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান এ্যাডঃ সালমুন আহম্মেদ ডন,, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কাজী মারজাহান নিতু,সহকারি কমিশনার ভুমি সীমা শারমিন,মজিবর রহমান,,ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম,আবু সাইদ পিন্টু,নুরুল ইসলাম নুরু,শিক্ষা অফিসার শামসুজ্জোহা,মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুল বারি,সমাজ সেবা কর্মকর্তা আফাজ উদ্দিন,যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা আনিসুজ্জামান প্রমুখ,।সাবেক ফুটবলার হামিদুল ইসলাম আজম,বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী শেখ নুর মোহাম্মদ জকু,ও, হাফিজুর রহমান জীবনের উপস্থাপনায় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন,পৌর কাউন্সিলর,জহুরুল ইসলাম স্বপন,কাজী আলী আসগর সাচ্চু,,প্রেসক্লাবের সভাপতি খন্দকার শাহ আলম মন্টু,,উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সম্পাদক খন্দকার জিহাদী জুলফিকার টুটুল,সাবেক ফুটবলার ঢাকা ১ম বিভাগের খেলোয়াড় শরিফুল ইসলাম,প্রমুখ।

খেলায় হারদী ইউনিয়নকে গোল্ডেন গোলে হারিয়ে কুমারি ইউনিয়ন   জয় লাভ করে। খেলা পরিচালনা করেন কুষ্টিয়া থেকে আগত রেফারি দিদার আলী,সহকারি রেফারি দেলোয়ার হোসেন,শাহিন উদ্দিন,।সহকারি মহসিন কামাল,হাসান মাহমুদ ও আব্দুস সালাম।ধারাবিবরনি বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ নুর মোহাম্মদ জকু,হামিদুল ইসলাম আজম,  হাফিজুর রহমান জীবন।খেলা শেষে প্রধান অতিথি শ্রেষ্ট খেলোয়াড়,শ্রেষ্ট দর্শক,সহ বিভিন্ন রকম পুরস্কার প্রদান করেন,স্পন্সর করেন,মন্ডল স্পর্টস,মীর ক্রোকারিজ,মিনিষ্টার ফ্রিজ।এ ছাড়াও জয়ি ও রানারআপ দের পুরস্কৃার প্রদান করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *