স্বপ্নেও ভাবিনি পাকা ঘরে ঘুমাতে পারবো: রিনা খাতুন

শালিখা (মাগুরা) প্রতিনিধি: আমাদের মতো গরিব মানুষ টাকা পয়সা ছাড়াই পাকা ঘরে ঘুমোতে পারবো এ কথা স্বপ্নেও ভাবেনি । প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া উপহার পেয়ে যে খুশি লাগতেছে আমি তা কাউকে বলে বোঝাতে পারবো না । তবে মরার আগে প্রধানমন্ত্রীর জন্য দোয়া করি আল্লাহ যেন তাকে অনেক হায়াত দান করে।গতকাল রবিবার উপজেলা মিলনায়তন কক্ষে গৃহহীন ও ভূমিহীনদের মাঝে ঘরের চাবি ও দলিল প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি মাগুরা-২ আসনের সাংসদ ড. শ্রী শিকদার মহোদয়ের নিকট থেকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া উপহারের ঘরের চাবি ও দলিল হাতে পেয়ে এমনই আবেগাপ্লুত অভিব্যক্তি প্রকাশ করেন মাগুরার শালিখা উপজেলার তালখড়ি ইউনিয়নের উজগ্রামের রিনা খাতুন। স্বামী বাচ্চু খাঁ ও তিন ছেলে, দুই মেয়ে নিয়ে ১৯ বছর ধরে ধান-চালের চাতালে কাজ করছেন তিনি । মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ভূমি ও গৃহহীনদের ঘর দেবে এ কথা জানতে পেরেই এলাকার চৌকিদার তারিকুলের সাথে যোগাযোগ করে উপজেলা প্রশাসনের নিকট দরখাস্ত দেন তিনি। কোন টাকা ও তদবির ছাড়াই পাকা ঘর পেয়ে অশেষ সন্তোষ প্রকাশ করেন মধ্য এই মহিলা। অপরদিকে আরেকজন উপকারভোগী ফারজানা বেগমের সাথে কথা বললে তিনি জানান শ্বশুর মারা যাওয়ার আগে কোন জায়গা জমি রেখে যায়নি চারটি মেয়ে নিয়ে খুবই কষ্টে দিন কাটাতাম। দুই বেলা দুই মুঠো খাবারই খেতে পারতাম না সেখানে ঘরের কথা তো ভাবতেই পারেনি। মেয়েরা সবসময় বলত মা বাবারে বল একটা ঘর করতে  তা না হলে আমাদের ভালো জায়গায় বিয়ে হবে না । আজ ঘর পেয়ে যে আনন্দ লাগতছে তা বলে বোঝানোর ভাষা আমার নেই এই বলে অঝোর ধারায় কাঁদতে থাকেন ফারজানা বেগম। এমনি আরও কয়েকজন উপকারভোগীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, যেখানে আহার ছিল দুর্বোধ্য, ঘর  ছিল আকাশ কুসুম এর মত। ঘর পেয়ে তারা যেন আজ আনন্দের বন্যায় ভাসছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *