শিবগঞ্জে ইউপি সদস্যকে হয়রানীর অভিযোগ- থানায় জিডি

নুরতাজ আলম: চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে কানসাট ইউনিয়ন পরিষদের এক মহিলা সদস্যকে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্নভাবে হয়রানীর অভিযোগ করেছেন এবং থানায় জিডি করেছেন ইউপি সদস্য নিজেই।

শনিবার কানসাট ইউপি ৭, ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা সদস্য ফেরদৌসি খাতুন এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানান, গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আমার নির্বাচনী এলাকায় জনগনের ভালবাসায় সদস্য হিসেবে আমি নির্বাচিত হই। এরপর আবার উপজেলা পরিসদের সদস্য হিসেবেও নির্বাচিত হই। নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই আমার এলাকার গরীব, দু:খী ও অসহায় মানুষসহ বিভিন্ন সুবিধা বঞ্চিত মানুষের পাশে সাধ্যমতো দাঁড়াতে চেষ্টা করেই এসেছি। ভিজিএফ, বয়স্ক, বিধবা ও প্রতিবন্ধী ভাতা সহ বিভিন্ন ভাতার কার্ড এমনকি নিরাপদ পানির ব্যবস্থা হিসেবে বিভিন্ন সময়ে সরকারি বরাদ্দের টিউবওয়েল নিয়ে এলাকার মানুষের পাশেই থেকেছি যা আমার এলাকার সর্বপর্যায়ের মানুষ জানেন।

কিন্তু পারিবারিক এক দীর্ঘ শত্রুতার জেরে ও ব্যক্তিগত স্বার্থ পূরণ না হওয়ায় দীর্ঘদিন যাবৎ একটি স্বার্থান্বেষী মহল আমার সরলতার সুযোগে আমার বিরোধীতা করেই আসছে। সম্প্রতি এলাকার অসহায় ও দরিদ্র সুবিধাভোগী কিছু মানুষকে বিভিন্ন সুবিধা প্রদানের প্রলোভন দেখিয়ে আমার বিরুদ্ধে বিভিন্ন মিথ্যা কথা রটিয়ে আমার মান ক্ষুন্ন করার ও অহেতুক হয়রানি করার চেষ্টা করছে। আমি একজন সাধারন ইউপি সদস্য হিসেবে যতটুকু সম্ভব এলাকার মানুষের পাশে থাকার পরও এমন মিথ্যা রটনা অনকটাই দু:খজনক। পারিবারিক বিষয়কে সুযোগে কাজে লাগিয়ে আমার বিষয়ে যেসব অভিযোগ দেয়া হয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও হয়রানি মূলক। এ বিষয়ে এলাকার দুস্থ ও সরলমনা মানুষকে ব্যবহার করা তাদের জন্য লজ্জাজনক। আমি এলাকার গরীব, অসহায় ও দুস্থ সহ সর্বপর্যায়ের জনগনের প্রতি আহ্বান জানাতে চাই যে, তারা যেন অল্প স্বার্থের জন্য কারো প্রলোভনে পড়ে কারো স্বার্থ হাসিলে ব্যবহার না হয়। একজন জনপ্রতিনিধি হিসেবে আমি এলাকার মানুষের পাশে ছিলাম, আছি এবং থাকবো। এক্ষেত্রে সকলের সুপরামর্শ ও সহযোগীতা একান্তভাবে কাম্য। এসময় ইউপি সদস্য ফেরদৌসি খাতুন আরো বলেন, একজন সরল মানুষকে ইচ্ছে করলেই হয়রানি করা যায়, কিন্তু সত্যকে মিথ্যা দিয়ে ঢেকে দেয়া যায় না। আমি বর্তমানে হয়রানির শিকার একজন মহিলা সদস্য হিসেবে সকলের সহযোগীতা কামনা করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *