বাগেরহাটে ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত পলাতক মাসুম হাওলাদার ভারতে গ্রেফতার

ষ্টাফ রিপোর্টার: বাগেরহাটের শরণখোলার চাঞ্চল্যকর জাহিদুল ইসলাম তালুকদার (২৫) হত্যা মামলায় ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামি মাসুম হাওলাদারকে ভারতের নয়াদিল্লি থেকে ইন্টারপোলের মাধ্যমে পুলশি এ সি পি পংকজ সিং এর নেতৃত্বে গত ২৪ ডিসেম্বর গ্রেফতার করেছে সেদেশের পুলিশ। গ্রেফতারকৃত ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত পলাতক মাসুম হাওলাদার (৪০) উপজেলার বাঁধাল গ্রামের আদম আলী হাওলাদের পুত্র। শরণখোলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: সাইদুর রহমান জানান, দু’দেশের আনুষ্ঠানিকতা শেষে পলাতক আসামি মাসুম হাওলাদারকে ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া চলছে।
পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, শরণখোলা উপজেলার খোন্তকাটা ইউনিয়নের নলবুনিয়া গ্রামের ছিদ্দিক তালুকদারের পুত্র জাহিদুল ইসলাম তালুকদারকে ২০০৫ সালের ৬জুন রাতে প্রতিপক্ষ মাসুম হাওলাদার ডেকে নিয়ে জবাই করে হত্যা করে পার্শ্ববর্তী মাঠের ফসলের ক্ষেতে ফেলে রেখে যায়।খবর পেয়ে ৭জুন সকালে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় নিহতের পিতা বাদি হয়ে শরণখোলা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।জাহিদুলের চাচাতো ভাই শরণখোলা উপজেলা কৃষকলীগের সাধারন সম্পাদক মো: আলমগীর হোসেন জানান,নিহত জাহিদুল নলবুনিয়া বাজারে মোবাইল ফোন ফ্লেক্সির ব্যবসা করতেন।
সূত্রে আরোও জানা যায়, জাহিদুল ইসলাম তালুকদার হত্যা মামলায় মোট ৫জন আসামি ছিলেন। স্বাক্ষ্য প্রমাণ শেষে ২০১৩ সালে আদালত মাসুম হাওলাদারকে ফাঁসির আদেশ দেন। বাকি চার আসামি খালাস পান।রায় ঘোষনার আগে ২০১০ সালে মাসুম হাওলাদার ভারতে পালিয়ে যায়।মাসুম সংঘবদ্ধ অপরাধ চক্রের সদস্য। অপহরণ, হত্যাসহ সন্ত্রাসী নানা কর্মকান্ডে সে জড়িত ছিল।
নিহতের মা মমতাজ বেগম বলেন, ছেলে হত্যার পলাতক মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত মাসুম হাওলাদার ভারতে গ্রেফতার হওয়ায় তিনি খুশি। দিল্লির পুলিশের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন তিনি। তাকে বাংলাদেশে এনে ফাঁসি কার্যকর দেখতে চান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *