ফেসবুক স্টাডাসের জের, মাগুরখালীতে মেম্বরকে শারীরিক লাঞ্চিত করলো মাইকেল!

জি এম আসলাম হোসেন, কপিলমুনিঃ ত্রান পায়নি বৃদ্ধা, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকের এমন একটি স্টাটাস-এ কমেন্ট করার জের ধরে কপিলমুনির পার্শ্ববর্তী ডুমুরিয়া উপজেলার ১৪ নং মাগুরখালী ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বর ও ১ নং প্যানেল চেয়ারম্যান অরুপ রতন মন্ডলকে শারীরিকভাবে লাঞ্চিত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বুধবার সকাল সাড়ে ৭ টার দিকে মাগুরখালী ইউনিয়নের আলাদীপুর বাজারের কে এম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান গেইটের সামনে দোকানে উপস্থিত হলে ফেইসবুক স্টাটাস নিয়ে তর্কের এক পর্যায় কমেন্ট করার অপরাধে মাইকেল কর্তৃক ইউপি সদস্যকে লাঞ্চিতের এ ঘটনাটি ঘটে।

ঐ এলাকার নারায়ন রায়ের ছেলে সন্ত্রাসী মাইকেল রায় (৩৬) স্থানীয় এমপি’র নাম ভাঙ্গিয়ে দীর্ঘদিন এলাকায় জমি দখল, সন্ত্রাসী কর্মকান্ডসহ তৎপরতা চালিয়ে আসছিলেন, সর্বশেষ মেম্বর লাঞ্চিতের ঘটনা ঘটায় মাইকেল। এলাকার সুনামধন্য ইউপি সদস্যকে লাঞ্চিত করার ঘটনায় এলাকায় মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। স্থানীয় মানুষের মাঝে এক উত্তেজনা বিরাজ করছে। নামের এক বখাটে।

সরেজমিন গেলে স্থানীয়রা জানান, মাগুরখালী ইউপির ৫ নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য অরুপ রতন মন্ডল দীর্ঘদিন জনপ্রতিনিধি হিসাবে সুনামের সাথে কাজ করে আসছেন। সম্প্রতি করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে সরকার ত্রান কমিটির নির্দেশনা ও বাস্তবায়নের রুল জারি করলে মাগুরখালী ইউনিয়নে এর ব্যত্ত্বয় ঘটে। অসহায়দের না দিয়ে বিত্ত্বশালীদের তালিকা প্রস্ততসহ সেচ্ছাচারিতা নিয়ে ফেইসবুক হৃদয়স্পর্শী স্টাটাস প্রকাশ করেন জনৈক ব্যক্তি। যার কমেন্ট করেন অরুপ মন্ডল। তিনি লেখেন জনৈকা বয়োবৃদ্ধা মহিলা ত্রান পাননি। পেয়েছেন চেয়ারম্যানের পৌষ্যপুত্র বিত্ত্বশালীরা। এর বিরোধিতা করে সন্ত্রাসী মাইকেল। এরই জের ধরে ঘটনার দিন বুধবার সকাল সাড়ে ৭টায় ইউপি সদস্যকে লাঞ্চিত করে সে।

জানাগেছে, মাইকেল এলাকার এমপির নাম ভাঙ্গিয়ে ও চেয়ারম্যানের ইন্দনে এলাকায় জমি জবরদখল করে আসছে। অভিযোগ রয়েছে, স্থানীয় অমর রায়ের জমি জবর দখল করে নিয়েছে মাইকেল। একইভাবে মাগুরখালীর একটি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রঞ্জন কুমারের জমি জবর দখলের চেষ্টা চালায় মাইকেল।
এ বিষয়ে লাঞ্চিতের শিকার মেম্বর অরুপ রতন মন্ডল বলেন, ‘আমাকে মাইকেল মারপিট করেছে, সে সন্ত্রাসী প্রকৃতির লোক। আমাকে মারধোর করেও সে ক্ষ্যান্ত নয়, আবার বিভিন্নভাবে হুমকি দিয়ে আসছে। আমি বর্তমানে পরিবারবর্গ নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় আছি।’
অভিযুক্ত মাইকেলের ০১৯১৩ ৪৪৪৪৫০ মোবাইল নম্বরে তার বক্তব্য নেওয়ার জন্য বার বার রিং দিলে ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।
মাগুরখালী পুলিশ ক্যাম্প ইনচার্জ আঃ খালেক বলেন, ‘আমি শুনেছি তবে, মেম্বর লাঞ্চিত হয়েছেন কিনা জানি না। এবিষয়ে কোন অভিযোগ পাই নি, পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেব।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *