পদ্মা সেতু চালু হলে মৈত্রী ট্রেন ঢাকা থেকে ছেড়ে বেনাপোল হয়ে কোলকাতা যাবে- ডিজি

স্টাফ রিপোর্টার : বাংলাদেশ রেলওয়ে অধিদপ্তরের মহা পরিচালক শামছুজ্জামান বলেন, ‘১৭ জুলাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঢাকার গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ‘বেনাপোল এক্সপ্রেসের’ উদ্বোধন ঘোষণা করবেন।

এ রেল সার্ভিসের নাম করন করা হয়েছে ’বেনাপোল এক্সপ্রেস”। পদ্মা সেতু চালু হলে মৈত্রী ট্রেন ঢাকা থেকে ছেড়ে বেনাপোল হয়ে কোলকাতা যাবে।শনিবার সকালে বেনাপোল রেলওয়ে ষ্টেশন পরিদর্শন শেষে একথা বলেন, বাংলাদেশ রেলওয়ে অধিদপ্তরের মহা পরিচালক শামছুজ্জামান। এ সময় তার সাথে উপস্থিত ছিলেন রেলওয়ের অতিরিক্ত সচিব প্রণব কুমার ঘোষ, জেনারেল ম্যানেজার সহিদুজ্জামান (রাজশাহী), অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক হোসাইন
মোহাম্মদ শওকত, শার্শা উপজেলা চেয়ারম্যান সিরাজুল হক মঞ্জু, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পুলক কুমার মন্ডল, নাগরিক অধিকার আন্দোলনের আহবায়ক নুরুজ্জামান ও সিএন্ডএফ এসোসিয়েশনের সভাপতি মফিজুর রহমান সজন,উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান প্রমুখ।

বেনাপোল রেল ষ্টেশন মাস্টার সাইদুজ্জামান বলেন, ৮৯৬ আসনের এই ট্রেন প্রতিদিন বেনাপোল স্টেশন থেকে ছেড়ে যশোর, ঈশ্বরদী জংশন ও ঢাকা বিমানবন্দরে যাত্রী ওঠানো-নামানোর জন্য সাময়িক বিরতি দিয়ে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনের শেষ গন্তব্যে গিয়ে থামবে। বেনাপোল থেকে এ ট্রেনের শোভন চেয়ারের টিকিটের মূল্য ৫০০, এসি (শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত) চেয়ার ১০০০ ও এসি কেবিনের দাম ১২০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। এর সঙ্গে যাত্রীদের আর কোনো চার্জ দিতে হবে না। আধুনিক এই ট্রেনের কোচগুলো (বগি) ইন্দোনেশিয়া থেকে আমদানি করা হয়েছে। কোরবানির ঈদযাত্রায় দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের মানুষ এই ট্রেনে চলাচলের সুবিধা ভোগ করতে পারবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *