চৌগাছায় কর্মহীন হতোদরিদ্রের মাঝে নিজের হাতে কর্মবীরের ত্রাণ বিতরণ

আব্দুল আলীম, চৌগাছা প্রতিনিধিঃ কভিড-১৯ করোনাভাইরাস দুর্যোগ মোকাবেলায় কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষের মাঝে নিয়মিত ত্রাণ বিতরণ করে চলেছে চৌগছা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক, ফুলসারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এবং ইউনিয়নবাসীর নয়নের মনি উন্নয়নের কারিগর মেহেদী মাসুদ চৌধুরী।

চৌধুরীর নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা যায় তিনি গত ২৬ শে মার্চ থেকে ২৯ তারিখ পর্যন্ত নিজস্ব তহবিল থেকে এই বিতরণের কাজ করেছেন। সেক্ষেত্রে তিনি হতদরিদ্র প্রত্যেক পরিবারে ৫ কেজি চাল, ১ কেজি ডাল, ১ কেজি আলু, ১ টি সাবান ও একটি করে মাস্ক দিয়েছেন। এখনো চলছে বিতরণের কার্যক্রম। বিশেষ করে প্রধানমন্ত্রী যখন সকলকে ঘরে থাকার জন্য নির্দেশ দেন তখন তিনি নিজ উদ্যোগে খেটে খাওয়া মানুষের বাড়ি বাড়ি চাল, ডালসহ নিত্যদ্রব্য সামগ্রী নিজে যেয়ে তাদের হাতে তুলে দিয়েছেন। বর্তমানে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া উপহার পাওয়ার যোগ্য ব্যক্তিদের বাড়ি বাড়ি পৌছে দিচ্ছেন। তার এ কাজে ফুড ফর লাইফ এর কর্মীরা, তার প্রিয় ব্যক্তিবর্গ ও ছাত্রলীগের ছেলেরা সহযোগীতা করছে।

৩০ মার্চ সোমবার থেকে শুরু হয়েছে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ত্রাণ তহবিল থেকে পাঠানো খাদ্য বিতরণের কাজ। এছাড়া তিনি নিজ ইউনিয়নসহ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে করোনা সম্পর্কে সতর্ক ও সচেতনতার জন্য নিজেই মাইকে সতর্কতাসহ পরামর্শমূলক বাণী দিচ্ছেন। যা অনেকের উপকারে আসছে। আবার অনেক সময় এমন হচ্ছে যে, সাধারণ লোক তার নিজের মুখে বলা পরামর্শ সাদরে গ্রহণ করছে। বিতরণের কার্য ধারাবাহিকতায় আজ সোমবা নিজ এলাকায় হতদরিদ্র পরিবারের মধ্যে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন।

এসম্পর্কে কর্মবীর মেহেদী মাসুদ চৌধুরী জানান, প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে পাঠানো খাদ্য সামগ্রী হতদরিদ্র পরিবারের মধ্যে বিতরণ করার কাজ চলছে। আজ আমার নিজের ইউনিয়নে বিতরণ করছিলাম। আশা রাখা যায় প্রয়োজনমতো বিতরণের পরিধি বৃদ্ধি করা হবে। বিতরণকৃত খাদ্যসামগ্রীর মধ্যে রয়েছে প্রতি পরিবারের জন্য ১০ কেজি চাল, ২ কেজি ডাল, ৫ কেজি আলু, একটি সাবান ও একটি করে মাস্ক। তিনি আরও বলেন নভেল করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব প্রতিরোধে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন ও বারবার হাত-ধোয়া জরুরি। দেশের এহেন দূরাবস্থায় চৌগাছার সাধারণ জনগণের প্রতি তার সর্বাত্মক সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।

দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, কোভিড-১৯ প্রতিরোধে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা জরুরি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে সরকারের পক্ষ থেকেও প্রয়োজনীয় সব উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। করোনা পরীক্ষার কিট সংগ্রহ করা হচ্ছে। চিকিৎসকসহ সংশ্লিষ্ট সবার পিপিই সরবরাহ করা হচ্ছে। মার্কিন সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল (সিডিসি) পরিষ্কার বলেছে, সাবান দিয়ে হাত ধুলে হাতের প্রায় সব জীবাণু ও কেমিক্যাল দূর হয় (২০ সেকেন্ডের কথা মাথায় রাখতে হবে)। যদি সাবান পানি না থাকে, তাহলে ৬০ শতাংশ অ্যালকোহল আছে, এমন হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে হাত পরিষ্কার করলে জীবাণু অন্যদের মাঝে ছড়ানো থেকে বিরত থাকা যায়। এ অবস্থায় আমাদের সবার উচিত নিজ নিজ ঘরে অবস্থান করা। অতি জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বের হওয়া উচিত নয়। আসুন করোনা প্রতিরোধে ঘরে থাকুন, নিজে সুরক্ষিত থাকুন এবং অন্যজনকেও নিরাপদে রাখুন। আপনি ঘরে থাকুন নিরাপদে থাকুন প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী করোনাভাইরাসের কারণে বাংলাদেশের কর্মহীন কোন মানুষ না খেয়ে থাকবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *