করোনায় আক্রান্ত প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য ও তার স্ত্রী সন্তানের জন্য মন্দিরের উদ্যোগে প্রার্থনা

উত্তম চক্রবর্তী,মনিরামপুর(যশোর)অফিস॥ পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য, তার স্ত্রী ও ছেলে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য ও তার স্ত্রীকে ঢাকা সিএমএইচে (সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল) ভর্তি করা হয়েছে। তবে প্রতিমন্ত্রীর স্ত্রীর শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়েছে।
অন্যদিকে তার একমাত্র ছেলে বর্তমানে হোম কোয়ারেন্টিনে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পৌর মেয়র অধ্যক্ষ কাজী মাহমুদুল হাসান। প্রতিমন্ত্রী ও তার পরিবারের সুস্থতা কামনায় শনিবার সন্ধ্যায় যশোরের মণিরামপুর উপজেলার রাজগঞ্জ এলাকার খেদাপাড়ার বাবা বৈদ্যনাথ ধাম মন্দিরের উদ্যোগে প্রার্থনা করা হয়। মেয়র কাজী মাহমুদুল হাসান জানান, গত সপ্তাহে নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টে প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য, তার স্ত্রী যশোর জেলা মহিলা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক তন্দ্রা ভট্টাচার্য্য এবং তাদের একমাত্র ছেলে সুপ্রিয় ভট্টাচার্য্য শুভ’র করোনা পজেটিভ আসে। ফলে গত মঙ্গলবার প্রতিমন্ত্রী ও তার স্ত্রীকে ঢাকা সিএমএইচে (সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল) ভর্তি করা হয়। এর মধ্যে তন্দ্রা ভট্টাচার্য্যরে অবস্থার অবনতি হওয়ায় বৃহস্পতিবার আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়।
অন্যদিকে ছেলে সুপ্রিয় ভট্টাচার্য্য শুভ বর্তমান রাজধানী ঢাকার বাসভবনে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। প্রতিমন্ত্রী ও তার পরিবারের সুস্থতা কামনায় শনিবার রাতে খেদাপাড়ার বাবা বৈদ্যনাথ ধাম মন্দিরের উদ্যোগে প্রার্থনা করা হয়। বাবা বৈদ্যনাথ ধাম মন্দিরের সভাপতি সুব্রত চক্রবর্তী’র সভাপতিত্বে প্রার্থনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, বাবা বৈদ্যনাথ ধাম মন্দিরের সাবেক সভাপতি সাধন নন্দী, সাধারণ সম্পাদক সুব্রত পাল, হরিহরনগর ইউনিয়ন আওয়ামীগের সাধারণ সম্পাদক রিপন কুমার ধর, খেদাপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা অশোক কুমার মল্লিক, খেদাপাড়া ইউনিয়ন যুবলীগের অন্যতম নেতা তারক দেবনাথ প্রমুখ। সংক্ষিপ্ত আলোচনা শেষে প্রার্থনা করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *