করোনার পর দাবদাহে পুড়ছে চীন, ১৯ দমকল কর্মী নিহত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : করোনাভাইরাসের ধাক্কা কাটিয়ে উঠার আগেই চীনে আঘাত হেনেছে ভয়াবহ দাবানল। মঙ্গলবার দেশটির দক্ষিপশ্চিমাঞ্চলীয় সিচুয়ান প্রদেশের ১ হাজার হেক্টরের বেশি এলাকায় ছড়িয়ে পড়েছে আগুন। এতে সবমিলিয়ে ১৯ দমকল কর্মী প্রাণ হারিয়েছেন।

সোমবার স্থানীয় সময় বিকাল ৩টা ৫১ মিনিটে প্রদেশের ঝিচ্যাং শহর থেকে শুরু হয় দাবানল। প্রবল বাতাসের কাররণে দ্রুত এই আগুন ছড়িয়ে পড়েত থাকে। স্থানীয় এক তথ্য কর্মকর্তার বরাত দিয়ে এ খবর জানিয়েছে চীনা সংবাদ মাধ্যম গ্লোবাল টাইমস।

আগুন নেভাতে কাজ করছেন ২ হাজারের বেশি দমকল কর্মী। মঙ্গলবার সকালে হঠাৎ করেই আগুনের তীব্রতা বেড়ে যায় এবং এতে পুড়ে মারা যান ১৯ দমকলকর্মী।

ইতিমধ্যে ১ হাজারের বেশি হেক্টর জমিতে ছড়িয়ে পড়েছে দাবানল। কালো ধোঁয়ায় ছেয়ে গেছে ওই এলাকার আকাশ। ফলে ঝিচ্যাং নগরীর আশপাশের আরও কিছু শহরে দাবানল ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। যেখানে ২৫০ টন মজুদ সমৃদ্ধ একটি পেট্রোলিয়াম গ্যাস স্টেশন রয়েছে। এছাড়া আরো রয়েছে দুটি গ্যাস স্টেশন, চারটি স্কুল এবং চারটি ডিপার্টমেন্টাল স্টোর। পুলিশ ইতিমধ্যে সেখানকার লোজনকে সরিয়ে নিতে শুরু করেছে। ওই এলাকার লোকসংখ্যা ১২শ’র বেশি।

চীনে এমন এক সময় এই দাবানল আঘাত হানলো যখন ভয়াবহ করোনা মহামারিতে আক্রান্তদের সামলাতে হিমসিম খাচ্ছে দেশটির সরকার। দেশটিতে মঙ্গলবার সকালেও নতুন করে ৭৯ জন আক্রান্ত হয়েছেন। ফলে মোট আক্রান্ত বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮১ হাজার ৫১৮ জন। করোনায় চীনে মারা গেছে মোট ৩ হাজার ৩০৫ জন। মঙ্গলবার সকালেই মারা গেছে আরও পাঁচজন।

প্রসঙ্গত গত ডিসেম্বরের শেষ নাগাদ চীনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহান শহর থেকেই গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে করোনাভাইরাস। তবে মার্চের শুরুর দিক থেকেই সেখানে ভাইরাসটির প্রাদুর্ভাব কমতে শুরু করেছে। উহানের পরিস্থিতিও অনেক উন্নত হয়েছে। যে কারণে দীর্ঘ দু মাস ধরে অবরুদ্ধ থাকার পর শনিবার শহরটি আংশিকভাবে খুলে দেয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *