উদ্বৃত্ত ২ লাখ কোটি টাকা সরকারি কোষাগারে জমা দেয়ার নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশন আইন ২০১৯ এর খসড়া চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। এছাড়া মন্ত্রিসভার বৈঠকে ‘স্ব-শাসিত সংস্থাসমুহের উদ্বৃত্ত অর্থ সরকারি কোষাগারে জমা প্রদান আইন ২০১৯’ এর খসড়ার অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

এই আইন অনুমোদনের পর মধ্য দিয়ে সরকারি কোষাগারে ৬৮টি প্রতিষ্ঠানের দীর্ঘদিন ধরে অলস হয়ে পড়ে থাকা ২,১২,১০০ কোটি টাকা থেকে প্রতিষ্ঠানগুলোর পরিচালনা ব্যয় মিটিয়ে বাকি অর্থ সরকারি কাজে ব্যয়ের জন্য নেয়ার সুযোগ সৃষ্টি হলো।

সোমবার দুপুরে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম। এর আগে সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সভাপতিত্ব করেন।

সভা শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, দেশে উদ্বৃত্ত অর্থ রয়েছে ৬৯টি প্রতিষ্ঠানের। তবে বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ড (বিআরডিবি) বাদ দিলে মোট ৬৮টি প্রতিষ্ঠান। এদের মধ্যে ২৫টি শীর্ষ প্রতিষ্ঠান রয়েছে। যেমন- বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশনের ২১ হাজার ৫৮০ কোটি টাকা, পেট্রোবাংলার ১৮ হাজার ২০৪ কোটি টাকা, বিপিডিবি বা পিডিপি’র ১৩ হাজার ৪৫৪ কোটি টাকা, চট্টগ্রাম বন্দরের ৯১৩ কোটি টাকা, রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) চার হাজার ৩০ কোটি টাকা রয়েছে। এছাড়া শিক্ষাবোর্ডগুলোর মধ্যে মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড ঢাকা ও বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের ৪২৫ কোটি টাকা এবং জাতীয বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই হাজার ২৫ কোটি টাকা আছে।

এক প্রশ্নের জবাবে শফিউল আলম বলেন, আইনি অধিকারের কোনো ক্ষুণ্ন করা হবে না। সংস্থাগুলোর টাকার প্রয়োজন হলে সরকার সেটা দেবে। স্বায়ত্তশাসনে ও আর্থিক ডিসিপ্লিনে কোনো সমস্যা নেই। যে আইডল মানি আছে, সেটাকে সরকার কাজে লাগাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *